Header Ads

প্রাক লকডাউনে বাজারে আগুন, লকডাউনবিধি না মানলে জেলে যেতে হবে : পুলিশ কমিশনার মুন্না প্রসাদ গুপ্তা


নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, গুয়াহাটি : বিজেপি সরকার মাত্র ৪ দিনের নোটিশে দেশে লকডাউন ঘোষণা করে দেশের লক্ষ লক্ষ পরিয়াযী শ্রমিককে পথে বসিয়েছিলেনএবার গুয়াহাটি মহানগরে গরিব শ্রমজীবী মানুষের কথা চিন্তা না করে সরকার টোটাল লকডাউন ঘোষণা করে গরিব মানুষকে পথে বসাতে চলেছেগুয়াহাটি মহানগরের নাগরিকদের সামাজিক দায়িত্ববোধ আছে বলে মনে হয় নাসরকারের খাদ্যমন্ত্রী কোথায়? পুলিশ প্রশাসন কোথায়? গতকাল থেকে মহানগরের মদের দোকানে মদারুদের সারি, সামাজিক দূরত্ব নেই, মুদির দোকান, শাক-সবজির দোকানে যে ভিড় লক্ষ্য করা গেল, যা গুয়াহাটি বাসীর লজ্জা, দের থেকে দু-দিন আলু ৫০ থেকে ৭০ টাকা, পেয়াঁজ ৬০ থেকে ৭০ টাকা, গাজর ২০০ টাকা, চাল, ডাল, আটা, তেল সব সামগ্রীর দাম ৫ থেকে ১০ শতাংশ বাড়িয়ে দেওয়া হল, তা নিয়ন্ত্রণে কেউ এগিয়ে এলো না। গুয়াহাটির প্রতি বাজারে একই দৃশ্য, মানুষের অন্তহীন লোভটাকার বিলাসিতা দেখলো হতদরিদ্র শ্রমজীবী মানুষমদের দোকানে লম্বা লাইন প্রমাণ করলো গুয়াহাটিবাসী দেশের কথা ভাবে না। 
ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণ নিয়ে উদ্বিগ্ন নয়। সরকার বার বার বলছে মদ, তামাকের নেশা ছাড়তে হবে, মুখে মাস্ক পড়তে হবে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে, কে মানে কার কথা? আজ শহরে দেখা গেলো মাছ, মাংস, মদ আগে, করোনা পরে। প্রতিদিন করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। ২৪ ঘন্টায় ২০৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। রাজ্যে প্রায় ৭ হাজার আক্রান্ত, ৩ লক্ষ ৬২ হাজারকে টেস্ট করা হয়েছে। কংগ্রেস সভাপতি রিপুন বরা আজ অভিযোগ করেন, ঠেলাওলা, রিকশাওয়ালা, ফুটপাথে সবজি, মাছ বিক্রি করা গরিব মানুষদের কথা সরকার চিন্তা করল নাবিরোধী দল-সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা পর্যন্ত করা হলো না। আজ পুলিশ কমিশনার মুন্না গুপ্তা গুয়াহাটিবাসীকে সতর্ক করে বলেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির অধীনে এবং ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট আইনের অধীনে টোটাল লকডাউন অমান্য করলে কড়া শাস্তি, জেলে পর্যন্ত যেতে হবেতবে যাদের বিমানে, ট্রেন, টিকিট আছে তা দেখিয়ে স্টেশন বা বিমানবন্দরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে।

No comments

Powered by Blogger.