Header Ads

ক্রিকেট খেলাতেও ‘ম্যান অফ দ্য ম্যাচ’ হয়েছিলেন মমতা !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়
শরীরচর্চায়, খেলাধুলায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আগ্রহ ও উৎসাহ দেওয়ার খবর প্রায়শই সংবাদমাধ্যমে আসে। ৬৩ বছর বয়সেও তাঁর শাড়ি পরে ব্যাডমিন্টন খেলার ভিডিও দেখা যায়। কখনও বা টেনিস তারকা সানিয়া মির্জার সঙ্গেও র‌্যাকেট হাতে দেখা যায় তাকে। শরীর ফিট রাখতে হাজার ব্যস্ততার মধ্যেও সুযোগ পেলেই নিয়ম করে হাঁটতে ভালোবাসেন তিনি। কিন্তু, তিনি যে ক্রিকেট ম্যাচে সেরা খেলোয়াড় হয়েছিলেন, কংগ্রেস নেতা মার্গারেট আলভার সৌজন্যে এবার তা জানা গেল।

কংগ্রেস নেত্রী মার্গারেট আলভার ছেলে নিবেদিত আলভা গত বৃহস্পতিবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মার্গারেট আলভার ৩৪ বছর আগের একটি ছবি পোস্ট করেছেন। রাজ্যসভা বনাম লোকসভার সাংসদদের ম্যাচে মা মার্গারেটের সঙ্গে সেই ছবিতে দেখা গিয়েছে ছোট নিবেদিতকে। আর ছবিতে মার্গারেট আলভার পাশে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। বৃহস্পতিবার এই ছবি পোস্ট করেছিলেন কর্নাটক কংগ্রেসের মুখপাত্র আলভা।
পরে তৃণমূল নেত্রীর ঘনিষ্ঠ এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয় ৩৪ বছর আগের ওই ক্রিকেট ম্যাচের মুহূর্ত। জানা যায়, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি আর কুমারমঙ্গলমের নেতৃত্বাধীন লোকসভা টিমের সদস্যা ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংসদের উচ্চকক্ষকে হারিয়ে ম্যাচ জিতেছিলেন লোকসভার সাংসদরা। উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্সের জন্য ‘ম্যাচের সেরা’ হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
নিজের পুরনো ছবি সংগ্রহে সেভাবে কখনই আগ্রহী ছিলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ৩৪ বছর পুরনো ক্রিকেট ম্যাচের ছবি যে তাকে স্মৃতির সরণিতে নিয়ে যায়, তাও জানা যায় মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্রেই।
রোজ ১০ কিলোমিটারের বেশি হাঁটার চেষ্টা করেন মমতা। কিছুটা ট্রেডমিলে, কখনও হাঁটাপথেও। নবান্নে নিজের রুমেও কাজের ফাঁকে ফাঁকে মাঝেমধ্যেই হেঁটে নেন। বিধানসভায় গেলেও বাগানে হাঁটতে দেখা গিয়েছে তাকে। জেলায় বা বিদেশ সফরেও রাস্তায় সাবলীল ভাবে হেঁটে বেড়ান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। পাহাড় বা জঙ্গলের পথেও হাঁটার কর্মসূচী থাকেই।

No comments

Powered by Blogger.