Header Ads

লকডাউন ১৭ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি, ৩০টি জেলা গ্রিন জোন, রাতে সব বন্ধ, বাস, উবের, ওলা, এমনকি মদের দোকানও খোলা,


অমল গুপ্ত, গুয়াহাটি : দেশে লকডাউনের তৃতীয় পর্যায়ের আরও ১৪ দিন সময়সীমা বৃদ্ধি করা হল। ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময় অসমের ৩৩টি জেলাকে রেড জোনে অন্তভুক্ত করা হয়নি। অধিকাংশ জেলা গ্রিন জোনের সুবিধা পাবেন। তবে সন্ধ্যা ৭ টা থেকে সকাল ৭ টা পর্যন্ত যান চলাচল, লোকের যাতায়াত সবই বন্ধ থাকবে। বলা যেতে পারে কারফিউর কবলে থাকবে সারা দেশ। গ্রিন জোনে ৬ ফুট ব্যাবধান রক্ষা করে, ৫ জনের কম সংখ্যক মানুষ মদ, পানের দোকানে যেতে পারবে। অর্থাৎ মদ, পানের দোকান খোলা থাকবে। বড় বাজার, বড় হাট-বাজার, শপিং মল, বিদ্যালয়, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে, ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যাবে, উবের ওলা চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে ১ জনের বেশি যাত্রী নিতে পারবে না। বাইকের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সরকারি অফিস ৩৩ শতাংশ কর্মী নিয়ে চালাতে হবে। ছোটখাট দোকান, পাড়ার দোকান খোলা থাকবে। গ্রিন জোনে কৃষি কাজ, চা-বাগান প্রভৃতিতে কাজ চলবে। মন্দির, মসজিদ, গির্জা, প্রভৃতি ধর্মীয় স্থান বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে সিনেমা হলও। যে কোনো রাজনৈতিক জমায়েত বন্ধ, আর্ন্তজেলা বাস বন্ধ, বিমান, ট্রেন বন্ধ থাকবে। কন্টেনমেন্ট বা করোনা সংক্রমিত এলকায় আরোগ্য সেতু এপস বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। প্রতিটি মানুষকে তাদের মোবাইলে লিঙ্ক নিতেই হবে। অসমের ৩৩টি জেলার মধ্যে ৩০টি জেলা গ্রিন জোন, ৩টি জেলা অরেঞ্জ জোন। একটিও রেড জোনে পড়েনি বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা সন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, সরকার করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় কঠোর স্থিতি গ্রহণ করায় সরকার ফল পেয়েছে। ধুবড়ি, গোয়ালপাড়া এবং মারিগাঁও ছাড়া ৩০টি জেলা বেশ কিছু সুবিধা পাবে।

No comments

Powered by Blogger.