Header Ads

ডিমা হাসাওয়ের মধ্য দিয়ে বাইরে থেকে আসা যাত্রীদের যাতায়াতে বাধা দিলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ জেলাশাসকের

বিপ্লব দেব, হাফলং, ১৪ মেঃ  লকডাউনের মধ্যে বহিরাজ্যে আটকে পড়া মানুষকে নিয়ে ডিমা হাসাও জেলার মধ্য দিয়ে আসা যাওয়া করা যানবাহন চলাচলে যারা বাধার সৃষ্টি করছে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়া।

কাছাড়ে কভিড ১৯ রোগে ১০ জন ব্যক্তি আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে ডিমা হাসাও জেলার মধ্য দিয়ে বহিরাজ্য বা বহিজেলা নিজ গৃহ জেলায় ফিরে আসা ব্যক্তিদের ডিমা হাসাও জেলায় মধ্য দিয়ে যাতায়াত করার ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠার পর ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক জেলার বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠীর সর্বোচ্চ সংগঠন ও ছাত্র সংগঠন মহিলা সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়ে বলেন কভিড ১৯ নিয়ে সমগ্র মানবজাতি সঙ্কটের মুখে দাঁড়িয়ে এর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন লকডাউনের মধ্যে বহিজেলা ও বহিরাজ্যে আটকে পড়া ব্যক্তিরা এখন নিজ গৃহ জেলায় ফিরে যাচ্ছেন কিন্তু সে সময় ডিমা হাসাও জেলার মধ্য দিয়ে আসা যাওয়া করা এই সব ব্যক্তিদের বাধা দিচ্ছে একাংশ স্থানীয় মানুষ। জেলাশাসক এদের সাবধান করে দিয়ে বলেন যারাই এধরনের কাজে যুক্ত রয়েছেন তারা যাতে জেলাপ্রশাসন পুলিশ বা স্বাস্থ্য কর্মীদের কাজে বাধা প্রদান করে আইন নিজের হাতে তুলে না নেন। জেলাশাসক বলেন ডিমা হাসাও জেলার মধ্য দিয়ে আসা যাওয়া করার ক্ষেত্রে কাউকে যদি বাধা প্রদান করা হয় তাহলে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়া। পুলিশসুপার বীরবিক্রম গগৈ বলেন কভিড ১৯ নিয়ে যখন মানবজাতি কঠিন লড়াই করে যাচ্ছে ঠিক সে সময় ধর্মীয় ও জাতিগত বিদ্বেষ ও সাম্প্রদায়িক রং চরানো আইন শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে হুমকি স্বরূপ বলে মন্তব্য করে এই সঙ্কটময় মুহুর্তে কভিড ১৯ নিয়ে লড়াই চালিয়ে যেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন পুলিশসুপার। উল্লেখ্য কাছাড়ে কভিড ১৯ রোগে ১০ জন ব্যক্তি আক্রান্ত হওয়ার পরই বরাক উপত্যকা থেকে আসা যাত্রীদের ডিমা হাসাও ও কাছাড় জেলা সীমান্তবর্তী ডিটেকছড়া গেইটে আটকে  ডিমা হাসাও জেলায় প্রবেশ করতে না দিয়ে একাংশ স্থানীয় বাসিন্দা যাত্রীদের হয়রানি করছে বলে অভিযোগ। 

No comments

Powered by Blogger.