Header Ads

ডিমা হাসাও জেলায় জনতা কার্ফুর সমর্থন, করোনা ঠেকাতে রেলমন্ত্রক ৩১ মার্চ পর্যন্ত রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে

 বিপ্লব দেব, হাফলং ২২ মার্চঃ 

ভারতে দ্রুত বাড়ছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এখন পর্যন্ত এই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্য হয়েছে ছয় জনের। যার দরুন এখন করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক সর্বত্র। তবে অসমে এখনও করোনা ভাইরাসে কোনও রোগী আক্রান্ত খবর নেই। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দ্রুত হারে বাড়ার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রেলমন্ত্রক করোনা ঠেকাতে ভারতে ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব ধরনের যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

সব কয়টি রেল স্টেশন সাট ডাউন করা হয়েছে। এদিকে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে রবিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে জনতা কার্ফুর আহ্বান জানিয়েছিলেন তা দেশ জুরে ব্যাপক সাড়া ফেলে দেয়। এর থেকে বাদ যায়নি ডিমা হাসাও শনিবার সন্ধ্যা থেকেই লক ডাউন হতে থাকে হাফলং শহরের বাজার দোকান পাট। শনিবার রাত ৯ টার হাফলং শহর সম্পূর্ন জনশূন্য হয়ে পড়ে। নরেন্দ্র মোদীর জনতা কার্ফুর আহ্বানে রবিবার ডিমা হাসাও জেলার বিভিন্ন অঞ্চল জনশূন্য হয়ে পরে। হাফলং সহ মাহুর মাইবাং উমরাংসো হারাঙ্গাজাও সহ পাহাড়ি জেলার বিভিন্ন এলাকায় বাজার হাট দোকান পাট লক ডাউন হয়ে যায়। এমনকি কোনও যানবাহন চলাচল করেনি। সমাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সাধারন মানুষ নিজেকে নিজেই ঘরের মধ্যে আবদ্ধ করে রাখেন। এদিকে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে রবিবার থেকেই ভারতীয় রেল দেশের মধ্যে চলাচলকারী যাত্রীবাহী রেল এক্সপ্রেস ট্রেন দূরপাল্লার ট্রেন মেট্র রেল ইন্টারসিটির মত ট্রেন সব বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে। অন্যদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রামন আটকাতে সরকারি সব নিয়ম প্রত্যেক নাগরিককে মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছে ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। 

No comments

Powered by Blogger.