Header Ads

গুজব না ছড়াতে আর্জি হাইলাকান্দি জেলা উপায়ুক্তের

নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, হাইলাকান্দিঃ হাইলাকান্দি  জেলা প্রশাসন করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সম্পর্কীয় বিভিন্ন সচেতনতামূলক কার্যসূচি গ্রহণ করেছে। একই সঙ্গে অযথা গুজব না ছড়িয়ে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে জেলা শাসক কীর্তি জল্লি জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। 
    জেলায় করোনা ভাইরাসের কোনও ইতিমধ্যে সনাক্ত হয় নি বলে জানিয়ে জনগণকে সতর্কতা অবলম্বন করে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে  একটি বৈদ্যুতিক নিউজ চ্যানেলে জেলার বাইরে বসবাস কারী এক ব্যাক্তি করোনা আক্রান্ত বলে সংবাদ চাউর হওয়ায় কিছুটা উৎক্ণ্ঠার সৃষ্টি হলেও এব্যাপারে তথ্য প্রকাশ করে স্বাস্থ্য বিভাগ আসস্থ্য করে জানায় যে  ওই ব্যাক্তিটি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নয় বলে শিলচর মেডিকেল কলেজ থেকে দায়িত্ব প্রাপ্ত স্বাস্থ্য আধিকারিক নিশ্চিত করেছেন।  উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার বেঙ্গালুরু থেকে হাইলাকান্দি আসার পথে বদরপুর রেল স্টেশনে যুবকটিকে আটকে পরবর্তীতে শিলচর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের (এসএমসি ও এইচ) বিশেষ ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।  কিন্তু  সেখানে ক্লিনিকাল পরীক্ষায় ওই ব্যক্তির কোরোনা ভাইরাস এর কোনও লক্ষণ  পাওয়া যায়নি।
তথ্য অনুযায়ী ওই ব্যক্তিটি বেঙ্গালুরুতে একটি হোটেলে কর্মরত ছিল এবং  জ্বর ও সর্দিজনিত লক্ষণ দেখা দেওয়ায় বাড়ী ফেরার পথে  পরবর্তীতে  বুধবার ভোরে  এসকে রায় সিভিল হাসপাতালে বদরপুর থেকে নিয়ে আসা হয় এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য  পরবর্তীতে শিলচর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। এব্যাপারে স্বাস্থ্য বিভাগের যুগ্ম সঞ্চালক ডাঃ রমেশ চন্দ্র দ্বিবেদী জানিয়েছেন যে শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক, ডাঃ অজিত ভট্টাচার্জি জানিয়ে দিয়েছেন যে হাইলাকান্দি থেকে আসা ব্যক্তি এসএমসি ও এইচ-তে ভর্তি হয়ে কিছু সময়ের জন্য বিশেষ ওয়ার্ডে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তবে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত কোনও লক্ষণ তার শরীরে পাওয়া যায় নি এবং প্রাথমিক চিকিৎসার পর  তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
অন্যদিকে, জেলা শাসক কীর্তি জল্লি জনগণকে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য আবেদন করেছেন কারণ প্রশাসনের পক্ষ থেকে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।  পৃথক  ওয়ার্ড স্থাপন সহ রেপিড রেসপন্স দল গঠন এবং ২৪x৭ এর জন্য কন্ট্রোল রুম সহ এই রোগের বিস্তার রোধে সম্ভাব্য সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, "জেলা জুড়ে সার্কেল এবং ব্লক পর্যায়ে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে, এবং জন সমাবেশ এড়াতে পদক্ষেপ নিয়ে পরিস্থিতিটির ধারাবাহিক পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এদিকেন,বুধবার জেলা শাসক কীর্তি জল্লি এক নির্দেশ যুগে জেলার   বিভিন্ন  বিভাগকে করোনা ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা মূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সচেতনতা অভিযান আয়োজন করতে বলেন এবং বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনও সরকারী কর্মচারীর মোবাইল  ফোন স্যুইচ অফ  না রাখতে নির্দেশ দেন।

No comments

Powered by Blogger.