Header Ads

করোনায় ক্ষতিগ্ৰস্ত সাধারণ মানুষের পাশে কেন্দ্ৰ, একগুচ্ছ জনমোহিনী প্ৰকল্পের ঘোষণা কেন্দ্ৰীয় অৰ্থমন্ত্ৰী নিৰ্মলা সীতারমণের

নয়া ঠাহর ওয়েব ডেস্ক, ২৬ মাৰ্চঃ সারা বিশ্ব তথা দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্ৰমণ ঠেকাতে লক ডাউন চলছে। ফলত আৰ্থিকভাবে অসুবিধায় পড়েছেন তৃণমূল পৰ্যায় তথা শ্ৰমিক পৰ্যায়ের সাধারণ মানুষ। তাই সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ক্যাশ ট্ৰান্সফার করতে একগুচ্ছ জনমোহিনী ঘোষণা করল কেন্দ্ৰ সরকার। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠক করে একগুচ্ছ প্ৰকল্প ঘোষণা করেন কেন্দ্ৰীয় অৰ্থমন্ত্ৰী নিৰ্মলা সীতারমণ। তারই অন্যতম গুরুত্বপূৰ্ণ এই ক্যাশ ট্ৰান্সফার। 
ছবি, সৌঃ আন্তৰ্জাল
মোট আটটি ক্ষেত্ৰে এই অৰ্থ ট্ৰান্সফার করা হবে। তা হল- কৃষক সম্প্ৰদায়, ১০০ দিনের কাজ প্ৰকল্পের কৰ্মীরা, বিধবা ভাতা, যে সব মহিলাদের জনধন অ্যাকাউন্ট আছে, স্বনিৰ্ভর গোষ্ঠীর মহিলা, সংগঠিত ক্ষেত্ৰের কৰ্মী, নিৰ্মাণ কৰ্মী ও কিষাণ সম্মান যোজনার অন্তৰ্গত কৃষকরা। এই ৮টি ক্ষেত্ৰে যত মানুষ নথিভুক্ত রয়েছেন তাঁদের সকলের অ্যাকাউন্টে এপ্ৰিলের প্ৰথম সপ্তাহেই ২ হাজার টাকা করে ট্ৰান্সফার করা হবে বলে জানানো হয়েছে। এছাড়াও অৰ্থমন্ত্ৰী দেশে বড় ধরণের খাদ্য প্ৰকল্প ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেছেন- দেশের কোনও মানুষ ক্ষুধাৰ্থ থাকবে না। এদিন তিনি ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার খাদ্য সুরক্ষা প্ৰকল্পের ঘোষণা করেছেন। করোনার জেরে ক্ষতিগ্ৰস্ত মানুষ এই প্ৰকল্পের সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছেন অৰ্থমন্ত্ৰী।
নিৰ্মলা জানিয়েছেন- একটি টাস্ক ফোৰ্স গঠন করা হয়েছে। যাঁর নেতৃত্বে থাকবেন তিনি। ‘প্ৰধানমন্ত্ৰী গরীব কল্যাণ প্ৰকল্পের আওতায় ৮০ কোটি মানুষ বিনামূল্যে চাল-গম পেতেন। এবার জাতীয় সুরক্ষা আইনে এপ্ৰিল থেকে আরও অতিরিক্ত ৫ কিলোগ্ৰাম গম এবং চাল দেওয়া হবে। পরবৰ্তী ৩ মাস এক কিলোগ্ৰাম করে ডাল দেওয়া হবে।
কোভিড-১৯ ভাইরাসের সঙ্গে যেসব চিকিৎসক, নাৰ্স লড়াই করছেন তাঁদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকা স্বাস্থ্য বিমা ঘোষণা করেছেন অৰ্থমন্ত্ৰী।  

No comments

Powered by Blogger.