Header Ads

শেষ পর্যন্ত দিল্লির নির্বাচনে ভোটদানের হার জানাল কমিশন, দিল দেরির জন্য ব্যাখ্যা !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
দেরিতে হলেও, দিল্লির বিধানসভা ভোটে শতাংশের নিরিখে সর্বশেষ ভোটদানের হার জানাল নির্বাচন কমিশন। রবিবার বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানানো হয় শনিবার দিল্লিতে ভোট পড়েছে ৬২.৫৯ শতাংশ। যা লোকসভা নির্বাচনের থেকে প্রায় ২ শতাংশ বেশি। শনিবার সন্ধে ছটায় ভোট শেষ হয়েছে। তারও প্রায় ২৪ ঘন্টা পরে নির্বাচন কমিশনের এই বক্তব্য নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন।

নির্বাচন কমিশন ভোটদানের চূড়ান্ত হার রবিবারেও প্রকাশ করতে না পারায় প্রশ্ন তুলেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তাঁর প্রশ্ন কী করছে নির্বাচন কমিশন। এই ঘটনা তাঁকে আঘাত করেছে বলেও মন্তব্য করেছিলেন কেজরিওয়াল। সিনিয়র আম আদমি পার্টির নেতা সঞ্জয় সিং বলেছিলেন, এটাই হয়তো দেশের ইতিহাসে প্রথমবার যখন নির্বাচন কমিশন ভোট শেষ হওয়ার পর ভোটদানের চূড়ান্ত হার প্রকাশ করল না।
নির্বাচন কমিশন শেষবারের মতো শনিবার ভোটের হার প্রকাশ করেছিল। তখন জানানো হয়েছিল ৬১.৪৬ % ভোট পড়েছে। শনিবার সন্ধে ছটায় শেষ হয় ভোটদান। সকালের দিকে ভোটদানের হার কম থাকলেও, বেলার দিকে তা বাড়ে।
নির্বাচন কমিশন থেকে প্রাপ্য তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে ২০১৫-র নির্বাচন থেকে এবারের নির্বাচনে ৫ শতাংশ কম ভোট পড়েছে।
নির্বাচন কমিশন এদিন জানিয়েছে সব থেকে বেশি ভোট পড়েছে চাঁদনি চকের বালিমারানে। সেখানে ভোটদানের হার ছিল ৭১.১৬ শতাংশ। সব থেকে কম ভোট পড়েছে দিল্লি ক্যান্টনমেন্ট-এ। ভোটদানের হার ছিল ৪৫.৪ শতাংশ।
তবে ভোটদানের চূড়ান্ত হার জানাতে দেরি হওয়ার ঘটনার সাফাই দিয়ছে নির্বাচন কমিশন। জানিয়েছে, ১৩,৭৮০টি বুথ থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে হয়েছে। কমিশন জানিয়েছে রিটার্নিং অফিসাররা রাতেও ব্যস্ত ছিলেন। এরপর স্ক্রুটিনি করা হয়েছে। নির্ভুল কাজ করতে গিয়েই দেরি হয়েছে, জানিয়েছে কমিশন।

No comments

Powered by Blogger.