Header Ads

এঘাট, ওঘাট থেকে কালীঘাট! তৃণমূল নেতাদের 'প্রস্থে' বৃদ্ধি নিয়ে পিসি, ভাইপোর সমালোচনায় সেলিম !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
পাথর খাদান থেকে কয়লা মাফিয়া, এঘাট ওঘাট থেকে টাকা যাচ্ছে কালীঘাটে পিসি, ভাইপোর কাছে। নলহাটিতে কংগ্রেস ও বামেদের যৌথ সভা থেকে এমনটাই মন্তব্য করলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম। সিএএন, এনআরসি ও এনপিআর-এর বিরুদ্ধে সভা ডেকেছিল বাম-কংগ্রেস জোট। এইসভায় সোমেন মিত্রের হাজির হওয়ার কথা জানানো হলেও তিনি সেখানে যাননি।

নলহাটির সভায় মহম্মদ সেলিমের মুখে ছিল রাজ্যের পুলিশ আধিকারিক রাজীব কুমারের নাম। কটাক্ষ করে তিনি বলেন, পাখিটার যদি মাথা মুড়ে দেওয়া হয়, দৈত্যটা মরে যাবে। ওইরকমই হল রাজীব কুমার। তাঁর পেনড্রাইভের মধ্যে ছিল পিসি-ভাইপোর নাম। মোদী কিংবা দিদি কেউই চিটফান্ডের টাকা ফেরত দেয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।
সমাবেশ থেকে সেলিমের অভিযোগ, প্রস্থে বেড়েছেন তৃণমূল নেতারা। বাড়ি, গাড়ি হয়েছে তাঁদের। কোথাও কয়লা মাফিয়া তো কোথাও পাথর মাফিয়া, ১০০ দিনের কাজের টাকা, ঘরের টাকা, মিড ডে মিলের টাকা থেকে কিংবা রাস্তার মোড়ে সিভিক ভলান্টিয়ারদের তোলা টাকার ভাগ পৌঁছে যাচ্ছে কালীঘাটে। পিসি-ভাইপোর কাছে গিয়ে তা জমা হচ্ছে, অভিযোগ করেছেন সেলিম।
সমাবেশে মহঃ সেলিমের পাশাপাশি হাজির ছিলেন সেখানকার কংগ্রেস বিধায়ক মিল্টন রশিদ, ফরওয়ার্ডব্লক নেতা নরেন চট্টোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। কিন্তু সোমেন মিত্রে হাজির হওয়ার কথা থাকলেও তিনি ছিলেন না।
সমাবেশে থাকার কথা থাকলেও সোমেন মিত্র হাজির না হওয়ায় বিড়ম্বনায় পড়েন বাম নেতৃত্ব। জানা গিয়েছে, সোমেন মিত্রের অনুমতি না নিয়েই তাঁর যাওয়ার কথা বাম নেতৃত্বকে জানানো হয়েছিল। সেই মতো পোস্টার ছাপিয়ে সভার জন্য প্রচার করা হয়েছিল।

No comments

Powered by Blogger.