Header Ads

গণনার আগেই 'কনফিডেন্ট' কেজরিওয়ালের আমন্ত্রণ মমতাকে ! শুভেচ্ছা জানালেন মমতা !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
শেষমেশ হ্যাট্রিকের পথে কেজরিওয়াল শিবির। পর পর ৩ বার দিল্লি দখলের পথে আম আদমি পার্টি। ভারতীয় রাজনীতির অন্যতম 'কনিষ্ঠ' এই রাজনৈতিক দল রাজধানীর বিধানসভা যে তৃতীয়বারের জন্য দখল করতে চলেছে সেবিষয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন সেনাপতি কেজরিওয়াল। আর সেই আত্মবিশ্বাস থেকেই 'পাশে থাকা' তৃণমূল নেত্রী মমতার সঙ্গে ফলাফল ঘোষণার আগের দিনই ফোনে কথা হয়ে যায় আপ প্রধানের। কী উঠে এসেছে সেই কথপোকথোনে দেখে নেওয়া যাক।
শোনা যাচ্ছে, মঙ্গলবার ফল ঘোষণার আগে সোমবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোনে বহুক্ষণ কথা হয় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের। আর সেই সময়ই জেতার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী কেজরিওয়াল জানিয়ে দেন যে 'দিদি' মমতা যেন অবশ্যই তাঁর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এ বিষয়ে ঘরোয়াভাবে আমন্ত্রণও কেজরিওয়াল জানিয়ে দেন মমতাকে।
মমতা কী জানিয়েছেন? সূত্রের দাবি,দিল্লি থেকে কলকাতায় চলতে থাকা এই ফোনালাপে মমতা জানিয়ে দেন যে দিল্লিতে কেজরিওয়ালের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে তিনি হাজির থাকছেন। তবে যদি কোনও অন্য কাজ ঘিরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আটকে না পড়েন , তাহলেই তিনি দিল্লি যাবেন বলে জানিয়েছেন আপ প্রধানকে। কেজরিওয়াল এই নিয়ে তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে চলেছেন। ২০১৩ সালের ২৮ ডিসেম্বর তিনি প্রথমবার দিল্লি বিধানসভার মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ পাঠ করেন। তবে ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ সালে ইস্তফা দেন সেই পদ থেকে। এরপর ২০১৫ সালে বিপুল ভোটে জয় লাভ করে দিল্লির তখতে বসেন খড়গপুর আইআইটির প্রাক্তনী কেজরিওয়াল। 

বাংলার আঞ্চলিক দল হিসাবে তৃণমূল কংগ্রেস নিজের শক্তি বহুবার প্রদর্শিত করলেও বহুবার বাংলার বাইরেও প্রার্থী দিয়ে জাতীয় রাজনীতিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে মমতা শিবির। ২০১৪ সালে দিল্লির বুকে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের তরফে প্রার্থী দেওয়া হলেও, ২০২০ সালের দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে অবশ্য তৃণমূল সদর্পে ঘোষণা করে যে তাঁরা আম আদমি পার্টির সঙ্গেই রয়েছে।
কেজরির আপকে সমর্থনের জন্য টুইটও করেন তৃণমূলের নেতা ডেরেক ও ব্রায়ন। ভোটের প্রাথমিক ট্রেন্ড কী বলছে? দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে এখনও পর্যন্ত যা ট্রেন্ড তাতে আম আদমি পার্টি এগিয়ে রয়েছে ৫৭ টি আসনে। ১৩ টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। কংগ্রেসের হাত এখনও শূন্য।
এদিকে, 'আপনি কি কেজরিওয়ালকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন..?' সাংবাদিকের প্রশ্নে জবাব এল , 'নিশ্চয়ই, কেন করব না?.. আমি খুব খুশি আপ জিতেছে'। বাঁকুড়া থেকে এভাবেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি নির্বাচন ঘিরে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। এদিন তিনি ফোনে আপ নেতা কেজরিওয়ালকেও শুভেচ্ছা বার্তা জানান।
এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাঁকুড়া থেকে জানান যে তিনি আম আদমি পার্টির জয়ে খুশি। উল্লেখ্য, এর আগে মমতার দলের তরফে দিল্লি নির্বাচনে খোলাখুলি আপকে সমর্থনের বার্তা দেন ডেরেক ও ব্রায়ন। এরপর মমতা আজ বলেন, 'এই জয় কেজরিওয়ালজির জয়' । তাঁর দাবি, আম আদমি পার্টির উন্নয়নই কেজরিওয়াল শিবিরকে জিতিয়েছে।
দিল্লির নবনির্বাচিত সরকারের শপথ গ্রহণ ঘিরে এদিন প্রশ্ন করা হয় মমতাকে। তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে , তিনি কি দিল্লিতে শপথগ্রহণের দিন উপস্থিত থাকছেন?জবাবে মমতা জানান যে , তিনি চেষ্টা করবেন। এখন কিছুই বলতে পারছেন না। তবে এই বক্তব্য রাখার সময়ও মুখ্যমন্ত্রীর খোশ মেজাজই বলে দিচ্ছিল যে দিল্লি নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে তিনি কতটা খুশি!

No comments

Powered by Blogger.