Header Ads

প্রতিবেশী দেশের মুসলিমদেরও নাগরিকতা দিতে হবে, নাহলে দেশ জুড়ে বড় আন্দোলন হবেঃ চিদম্বরম !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 


কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম দিল্লির জেএনইউতে সিএএ আর এনআরসি সহ অনেক ইস্যুতেই নিজের বক্তব্য প্রকাশ করেন। চিদম্বরম বলেন, নাগরিকতা নিয়ে সংবিধানে লেখা আছে যে, যারা এদেশে থাকে অথবা যাদের অভিভাবক এদেশের নাগরিক ছিলেন, তাদের দেশের নাগরিক মানা হবে। উনি বলেন, সংবিধানে নাগরিকত্ব সংক্রান্ত ধারার শব্দ গুলোকে অন্তিম রুপ দেওয়ার জন্য সংবিধান সভার তিন মাস সময় লেগেছিল।

চিদম্বরম বলেন, এখন সম্পূর্ণ বিল পাশ করাতে মাত্র তিনদিন সময় লাগল আর নেহরু, আম্বেদকরকে ধারা গুলোকে অন্তিম রূপ দিতে তিন মাস সময় লেগেছিল। চিদম্বরম মোদী সরকারে বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলে বলেন, সরকার সংবিধানের প্রাথমিক স্তম্ভগুলোকে কমজোর করার কাজ করছে। উনি বলেন, ভারত ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেয়না।
চিদম্বরম বলেন, কংগ্রেস আর বামদের বিরোধ যাদের বিলের বাইরে রাখা হয়েছে তাদের নিয়ে। যাদের নাগরিকতার আওতায় রাখা হয়েছে, তাদের নিয়ে নয়। বিজেপি বলছে, কংগ্রেস প্রতারিত হিন্দু, শিখদের নাগরিকতা দেওয়ার বিরোধিতা করে--এটা মিথ্যে কথা। উনি বলেন, শরণার্থীদের নিয়ে একটি বিস্তৃত আইন হওয়া দরকার আমার মতে।
চিদম্বরম বলেন, নাগরিক সংশোধন আইন অসমের মানুষদের বাইরে বের করার জন্য আনা হয়েছে, ১২ লক্ষ হিন্দুদের ভারতীয় নাগরিকতা দেওয়া আর সাত লক্ষ মুসলিমদের ভারতের বাইরে পাঠানোর জন্য এই আইন আনা হয়েছে।
চিদম্বরম অভিযোগ করে বলেন, মোদী সরকার মুসলিমদের রাজ্য বিহীন করার চেষ্টা করছে। চিদম্বরম অভিযোগ করে বলেন, মুসলিমদের হয়ত দেশের বাইরে করার চেষ্টা করা হবে, নাহলে জোর করে ডিটেনশন ক্যাম্পে ঢোকানো হবে। উনি বলেন, যদি এরকম করা হয় তাহলে বড় আন্দোলন হবে। উনি বলেন, আমাদের দাবি হল, প্রতিবেশী দেশ থেকে আসা সমস্ত ধর্মের মানুষদের ভারতীয় নাগরিকতা দিতে হবে।

No comments

Powered by Blogger.