Header Ads

খুচরো জমা নিচ্ছেনা ব্যাঙ্ক, ফাঁপরে মন্দির কমিটি


নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, বদরপুর : এ যেন সাপের ছুঁচো গেলার অবস্থা। প্রণামির এক টাকা দুই টাকার কয়েন নিয়ে চূড়ান্ত বিপদে বদরপুরের মন্দির কমিটিগুলি। এই রাশি রাশি কয়েন কোন ব্যাংক জমা রাখতে চাইছে না। প্রতিটি মন্দিরেই ভক্তরা সাধ্যমত প্রণামি দেন। প্রণামিতে খুচরো পয়সাই বেশি পড়ে। পাঁচ, দশ, কুড়ি টাকার নোট মাঝে মধ্যে পড়লেও এক দুই টাকার কয়েনই বেশি পড়ে। বছর শেষে তার হিসাব হয়। এই প্রণামি দিয়েই মন্দিরের যাবতীয় উন্নয়ন হয়। এটাই দস্তুর। এর আগে ব্যাংকে এই কয়েন জমা করা হত। কিন্তু ইদানিং সেটা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে ফাঁপরে পড়েছে মন্দির কমিটি গুলি।সম্প্রতি হনুমান মন্দিরের ক্যাশ বাক্স খোলা হয়েছে। গুনে দেখা গেছে  এক টাকা দুই টাকার কয়েনে দশ হাজার টাকারও বেশি প্রণামি জমা পড়েছে। কিন্তু এই প্রণামি মন্দিরের কোন কাজে লাগান যাচ্ছে না। বদরপুরের স্থানীয় ব্যাংকগলিতে কয়েন গোনার কোন মেশিন নেই। প্রতি ব্যাঙ্কেই স্টাফ কম। ফলে পয়সা জমা হচ্ছেনা বলে জানালেন কোষাধ্যক্ষ তথা মন্দিরের রক্ষণাবেক্ষনের দায়িত্বে থাকা অপূর্ব কাঞ্চন ধর এবং বিজন দেব। শুধু হনুমান মন্দির নয়। বাকি মন্দির কমিটি গুলিরও একই হাল।  কী করবেন এতগুলি কয়েন নিয়ে ভেবে কোন সুরাহা পাচ্ছেন না।

No comments

Powered by Blogger.