Header Ads

বড়ো আন্দোলনের সফল পরিসমাপ্তি, তাই প্রধানমন্ত্রী বড়োদের কৃতজ্ঞতা জানাতে 7 ফেব্রুয়ারি আসছেন : সর্বানন্দ সনওয়াল



অমল গুপ্ত, গুয়াহাটি : জাপানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর গুয়াহাটির বৈঠক আসু ও অন্যান্য সংগঠনের জোর আন্দোলনের ফলে বাতিল হয়ে যায়, পরে খেলো ইন্ডিয়া ইউথ গেমস উদ্বোধন করারও কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর, আন্দোলন অব্যাহত থাকায় প্রধানমন্ত্রী ঝুঁকি নেননি। এবার গুয়াহাটি নয়, নিম্ন অসমের বড়োভূমিতে আসছেন, বিন্দুমাত্র ঝুঁকি নেই, এন ডি এফ বি-র চার গোষ্ঠী অস্ত্র সংবরণ করেছে,  বড়ো নেতারা কেন্দ্রকে লিখিতভাবে আশ্বাস দিয়েছেন আর পৃথক বড়ো রাজ্যের জন্যে আন্দোলন করবে না। তাই বড়োদের বিজয় উৎসবে অংশগ্রহণ করার জন্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি 7 ফেব্রুয়ারি কোকড়াঝার শহরের রেলওয়ে ওভারব্রিজের কাছে জাংখতা ময়দানে বেলা 11 নাগাদ এসে পৌছেবেন। আজ মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল, অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা, ডিজিপি ভাস্কর জ্যোতি মহন্ত কোকড়াঝারের ময়দান পরিদর্শন করে প্রস্তুতিপর্ব দেখেন। বিটিসি প্রধান হাগ্রামা মহিলারী জানান, প্রায় 6 লক্ষ মানুষ আসবে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ওইদিন সমাবেশে যাবার জন্যে অতিরিক্ত যাত্রীবাহী ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে। 7 ফেব্রুয়ারি সরকার বিটিসি চার জেলা বন্ধের দিন  ঘোষণা করেছে। আজ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বড়ো আন্দোলের সফল পরিসমাপ্তি ঘটেছে, তাই কৃতজ্ঞতা স্বরূপ প্রধানমন্ত্রী আসছেন। সাংসদ বিশ্বজিৎ দৈমারী বলেন, এই বিজয় উৎসব থেকে সারা বিশ্বে এক ভালো বার্তা যাবে। নবগঠিত বড়োল্যান্ড টেরিটরিয়াল রিজিয়ন এলাকায় প্রায় 70 ভাগ অবড়ো জনগোষ্ঠীর বাস, তাদের প্রতিনিধি তথা সাংসদ নব সরোনিয়াকে বড়ো চুক্তির সময় দিল্লিতে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি, তা নিয়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। হিমন্তবিশ্ব শর্মা জানান অবড়োদের দাবি দাওয়া নিয়ে আগামী 11, 12 তারিখে এক বৈঠক ডাকা হবে।

No comments

Powered by Blogger.