Header Ads

অমিত শাহ ভীতু, ইতিহাসও থুতু দেবে জানোয়ারটার ওপর : অনুরাগ কাশ্যপ, সিনেমা পরিচালক !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
চলচ্চিত্র নির্মাতা অনুরাগ কাশ্যপ চরম অবমাননাকর ভাষা ব্যবহার করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে আক্রমণ করেছেন। মাত্র কিছুদিন আগেই দাবি উঠছিল অনুরাগ কাশ্যপকে কেন্দ্র সরকার ফান্ডিং না করায় উনি মোদী সরকারের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে রয়েছেন। আর এখন সম্ভবত তারই প্রভাব দেখা যাচ্ছে তার মন্তব্যে। সোমবার তার টুইটে কাশ্যপ লিখেছেন, ‘আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কতটা ভীতু। নিজস্ব পুলিশ, নিজস্ব গুন্ডা, নিজস্ব সেনাবাহিনী এবং নিজের সুরক্ষা বাড়িয়ে নিরস্ত্র আন্দোলনকারীদের উপর আক্রমণ করায়। নোংরামো ও হীনতার পরিধি যদি থাকে তবে তা হলো অমিত শাহ। ইতিহাস এই জানোয়ার উপরে থুথু ফেলবে।” কশ্যপ এই টুইটটি শাহ এর দিল্লীতে হওয়া নির্বাচনী প্রচারের সময় CAA ও NRC’র বিরোধ করায় একটি যুবককে মারধর করার কারণে করেছিলেন। (_anurag_kashyap772 हमारा गृहमंत्री कितना डरपोक है । खुद की police , खुद ही के गुंडे , खुद की सेना और security अपनी बढ़ाता है और निहत्थे protestors पर आक्रमण करवाता है । घटियेपन और नीचता की हद अगर है तो वो है @AmitShah । इतिहास थूकेगा इस जानवर पर।)

বিতর্কিত টুইট পোস্ট করার পর কাশ্যপ, এরকম অনেক লোকের টুইটকে রিটুইট করে, যারা শাহ এর র‌্যালিতে হওয়া ঘটনটির ভিডিও শেয়ার করেছিল। এরপর যখন একজন বিখ্যাত সাংবাদিক কশ্যপকে ভাষাগত সীমানায় থেকে প্রতিবাদ জানানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন তখন কাশ্যপ নিজেকে বাঁচিয়ে বলেন, “আমাদের নিরাপত্তা কি এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে? তিনি যে ভাষায় কথা বলেন তার সাথে আমি তার ভাষাতেই কথা বলেছি। আর আমি যা শব্দ ব্যবহার করেছি তার মধ্যে কোনটি ভুল আপনি বলুন।”
একটি টুইটের জবাবে তিনি বলেছিলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর জনসভায় বিজেপি সমর্থকরা তার সামনে একজন প্রতিপক্ষকে মারধর করছে এবং সেই সময়, এটি দেখে যে কোন ধরণের মানুেই এরকম বলেন যেটি অমিত শাহ বলেছেন। আমাদের নিরাপত্তা কি এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে আছে? তিনি যে ভাষায় কথা বলেন তাকে সেই ভাষায় জবাব দেওয়া হয়েছে। এটিতে কোনটি আপত্তিজনক ভাষা বা শব্দ বলুন।
শাহ তার লোকদের আরও বলেছিলেন যে পিছন ফিরে তাকাবেন না, কিছুই হয়নি এবং তারপরে তারা জনগণকে ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলে চিৎকার করায়।
এই সমাবেশে, CAA এর বিরোধিতা করার জন্য একজন যুবককে লোহার চেয়ার দিয়ে মারা হয়। অমিত শাহ যুবকটিকে নিরাপদে বাইরে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন, কিন্তু লোকজনকে আর পেছন ফিরে তাকাতে বারণ করেন,এবং বলেন যে কিছুই হয়নি, আর তারপর ভারত মাতাকি জয়’ স্লোগানও দিয়েছিলেন। যাতে পরিস্থিতি বিগড়ে না যায় তাই অমিত শাহ সেই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন বলে বিজেপি’র দাবি।

No comments

Powered by Blogger.