Header Ads

ভারত শ্রীলংকা টি -২০ ম্যাচ, ক্রিকেটের জ্বরে কাবু গুয়াহাটি


দেবযানী, গুয়াহাটি
ভারত ও শ্রীলংকার টি-২০ ম্যাচে কাল ।এর প্রস্তুতি প্রায় সম্পূর্ণ হয়ে উঠেছে। বর্তমানে ক্রিকেটের জ্বরে কাবু গুয়াহাটি। রবিবার মুখোমুখি  হবে ভারত ও শ্রীলংকা।  ৫ জানুয়ারি অর্থাৎ রবিবার গুয়াহাটির বর্ষাপাড়া স্টেডিয়ামে টি-২০ ম্যাচ শুরু হতে চলেছে। এ নিয়ে উৎসাহী সবাই। বর্ষাপাড়া স্টেডিয়ামের ৪০ হাজার আসনের ভেতরে ৯০% শতাংশের বেশি টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। খেলা দেখার জন্য দেশের বিভিন্ন শহর থেকে উৎসাহী লোকেরা গুয়াহাটিতে  উপস্থিত হয়েছেন ।বিক্রি হচ্ছে ভারতীয় ও শ্রীলংকার জার্সী।এই জার্সী পরে অনেকেই খেলা দেখতে যাবেন।  শনিবার দিন বিকেলেও বার্ষপাড়া স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে দেখা যায় বিরাট বাহিনীকে। শনিবার  ভারতীয় ক্রিকেট খেলোয়াড় বিরাট কোহলি এক সংবাদ সম্মেলন করেন।এই সংবাদসম্মেলন  তিনি গুয়াহাটিকে  নিরাপদ শহর বলেই মন্তব্য করেন।
                                           
এই সংবাদসম্মেলনে নাগরিকত্ব সংশোধন আইন (কা)র বিষয়ে প্রশ্ন করাতে তিনি বলেন যে এই আইনের সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য আর জ্ঞান লাভ করার পরই তিনি তার মতামত জানাতে পারবেন। ভারত শ্রীলংকা টি -২০ ম্যাচ রবিবার দিন সন্ধ্যা ৭ টা থেকে শুরু হবে এবংবিকেল  ৪টার সময় খুলে দেওয়া হবে স্টেডিয়ামের প্রবেশদ্বার ।এরপর দর্শকরা ভিতরে প্রবেশ করতে পারবে ।গতকাল এক সংবাদমেল যোগে অসম ক্রিকেট সংস্থার সাধারণ সম্পাদক  দেবজিৎ শইকীয়া বলেন যে   খেলার সময় স্টেডিয়ামের ভেতরে মোবাইল ফোন, চাবি আর পার্স ছাড়া  আর কিছুই নেওয়া যাবে না ।বাইরে থেকে নেওয়া যাবে না জলের বোতলও ।অবশ্য জলের বোতল স্টেডিয়ামের ভেতরে কিনতে পাওয়া যাবে ।ভেতরে নেওয়া যাবে  রাষ্ট্রীয় পতাকা। মহানগর পুলিশ আয়ুক্ত মুন্না প্রাসাদ বলেন যে  ব্যানার-পোস্টার ,পেন্সিল ,স্কেচ পেন স্টেডিয়ামের ভেতরে নিয়ে যেতে পারা যাবেনা। 



ওদিকে মহানগর যানবাহন পুলিশ টি-২০ খেলার প্রতি লক্ষ্য রেখে বিশেষ পথ নির্দেশনা জারি করেছে। সেই অনুসারে ম্যাচ দেখতে পল্টন বাজার উলুবাড়ী আর লখরার  দিক থেকে আসা দর্শকরা একে আজাদ রোড হয়ে বর্ষাপাড়া স্টেডিয়ামে আসতে পারবে। গড়চুক - ভরলুমুখ থেকে আসা দর্শকরা একে দেব রোড হয়ে  স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে পারবে। রবিবার গুয়াহাটির কিছু- কিছু পথে  নো এন্ট্রি থাকবে। যেমন বর্ষাপাড়া তিনআলি থেকে ধিরেনপারা তিনআলি হবে ওয়ান ওয়ে।কেবল কারপাস থাকা গাড়ীএই পথে চলতে পারবে। আর এ কে দেব রোড আর একে  আজাদ রোডে সকাল ৮টা থেকে খেলা শেষ হওয়া পর্যন্ত বাণিজ্যিক যানবাহন নিষিদ্ধ থাকবে। লালগণেশ থেকে বর্ষাপাড়া পথে কার পাস না থাকা গাড়ী চলাতে পারা যাবে না। 

No comments

Powered by Blogger.