Header Ads

তৃণমূল নেতাদের কম্পন ধরিয়ে দিলেন পিকে, রিপোর্ট হাতে পেয়ে চক্ষু চড়ক গাছ মমতার !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় 
 
কলকাতা পুরসভা নির্বাচনের আগে প্রশান্ত কিশোরের রিপোর্ট হাতে পেয়ে হতবাক হয়ে গেলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই রিপোর্টে তৃণমূলের অন্দরে কম্পন শুরু হয়ে যাওয়ার জোগাড়। প্রশান্ত কিশোরের রিপোর্ট-এ ফেল করেছেন ৫০ শতাংশ প্রতিনিধিই! তিনি সুপারিশ করেছেন, ৪৫ থেকে ৫০ শতাংশ জন প্রতিনিধিকে বদল করতে হবে! 


কলকাতা-সহ রাজ্যের শতাধিক পুরসভায় ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে। এই অবস্থায় তৃণমূল কংগ্রেস তৈরি হচ্ছে পুরভোটে জিতে ২০২১’র আগে নিজেদের ঝালিয়ে নিতে। কিন্তু এই মিনি বিধানসভা ভোটেই কম্পন ধরে যাওয়ার পূর্বাভাস দিলেন প্রশান্ত কিশোর।
প্রশান্ত কিশোর এসেই দিদিকে বলো অভিযান শুরু করেছিলেন। তারপর প্রায় ২০ লক্ষ অভিযোগ জমা পড়েছে। তার মধ্যে অর্ধেক অর্থাৎ ১০ লক্ষ অভিযোগই এসেছে বিধায়ক, কাউন্সিলর ও পঞ্চায়েত স্তরের প্রতিনিধিদে্র বিরুদ্ধে। সেই রিপোর্ট হাতে পেয়ে চক্ষু চড়কগাছ মমতার।
মমতা এখন ভাবনা শুরু করেছেন, কাকে টিকিট দেবেন, কাকে দেবেন না। এই অবস্থায় প্রশান্ত সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ৪৫ থেকে ৫০ শতাংশে মুখ বদল না হলে পুরভোটে মুখ থুবড়ে পড়তে হবে তৃণমূলকে। এই অবস্থায় দেখার মমতা কী সিদ্ধান্ত নেন। কার কপালে জোটে টিকিট।
তৃণমূল নেতা তথা জনপ্রতিনধিরাও চিন্তায়। কার নামে কী অভিযোগ পড়েছে, কার ঘাড়ে কোপ পড়বে, কেউ জানে না। এবার মমতার দলের টিকিট পেতে গেলে প্রশান্ত কিশোরের ছাঁকনি দিয়ে গলতে হবে। সেটাই এখন তৃণমূল নেতাদের কাছে বড়় প্রশ্নচিহ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে!

No comments

Powered by Blogger.