Header Ads

২০২০ সালে হবে ভারত পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ ! বলে গেছিলেন বিখ্যাত ভবিষ্যদ্বক্তা নস্ত্রাদামুস !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়ঃ

নস্ত্রাদামুসকে (Nostradamus) গোটা বিশ্বে সঠিক ভবিষ্যদ্বাণীর জন্য শ্রদ্ধা করে। মহান ফ্রেঞ্চ ভবিষ্যদ্বক্তা নস্ত্রাদামুসের অনেক ভবিষ্যৎবাণীই সত্যি হয়েছে। যার মধ্যে বিশ্বযুদ্ধ, নেপোলিয়ানের উদয়, নাৎসি স্বৈরাচারী হিটলারের অস্তিত্ব যুক্ত আছে--নেপোলিয়ান আর হিটলারকে নস্ত্রাদামুস ঈশ্বর বিরোধী বলেছিলেন। নস্ত্রাদামুস ২০২০ সাল নিয়েও ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন। ওঁর হিসেবে এই নতুন বছর বেশ হিংসাত্মক হবে। যে সমস্ত দেশের সঙ্গে বহু বছর ধরে লড়াই চলে আসছে, তাদের মধ্যে যুদ্ধের পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।
তাঁর ভবিষ্যৎবাণী অনুযায়ী, ২০২০ সালে একটি নতুন যুগের সূচনা হবে। 

নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যৎবাণী অনুযায়ী, ২০২০ সালে বহু দেশের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হবে। বিশ্বের অনেক দেশে গৃহ যুদ্ধের পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। শোনা যায় যে, নস্ত্রাদামুস-এর এই ভবিষ্যৎবাণী চীনকে নিয়ে ছিল। চীন বিগত কয়েক বছর ধরে নিজের দেশেই নানান বিষয় নিয়ে সমস্যায় ভুগছে। চীন সরকার কয়েকটি অশান্ত এলাকাকে লাগাতার দমন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এরপরেও বিরোধ কমার নাম নিচ্ছে না।
নস্ত্রাদামুস বলেছিলেন যে, ২০২০ সালে দুনিয়ার অনেক দেশই একে অপরের সাথে যুদ্ধ শুর করতে পারে। অনেক দেশে যুদ্ধের পরিস্থিতিও সৃষ্টি হতে পারে। মনে করা হচ্ছে যে, তাঁর এই ভবিষ্যৎবাণী ভারত আর পাকিস্তানকে নিয়ে ছিল। বিগত কয়েক বছরে পাকিস্তান আর ভারতের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। ভারত কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর পাকিস্তানে উগ্র বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়।
পাকিস্তান এই ইস্যু বারবার আন্তর্জাতিক মঞ্চে তুলে ভারতকে কোণঠাসা করার চেষ্টাও চালিয়েছে। কিন্তু বারবার পাকিস্তান এ ব্যাপারে ব্যর্থ হয়েছে। ভারত সরকারকে অবশ্য বিশ্বের অন্য কোন দেশের সামনে এই ইস্যু নিয়ে চাপ সহ্য করতে হয়নি। কারণ এই ইস্যুতে বিশ্বের সবথেকে শক্তিধর দেশগুলো ভারতকে সমর্থন করে এসেছে। আর এর জন্য পাকিস্তান আরও চটে আছে।
পাকিস্তান এবার এই ইস্যু নিয়ে মুসলিম দেশ গুলোর সাথে বৈঠক করে মুসলিম দেশ গুলোকে ভারতের বিরুদ্ধে প্ররোচিত করতে চাইছে। এর জন্য বিশ্বের সবথেকে বড় মুসলিম সংগঠন যারা পাকিস্তান পন্থী বলে পরিচিত, তাদের একটু হলেও সমর্থন পাচ্ছে ইমরান সরকার। কিন্তু এখনো পর্যন্ত পাকিস্তান বাদে একটিও মুসলিম দেশ খোলাখুলি ভাবে এই ইস্যু নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে কিছু বলার সাহস দেখায়নি।

No comments

Powered by Blogger.