Header Ads

5 জানুয়ারি থেকে তিন কোটি মানুষের বাড়িতে গিয়ে বিজেপি কা বোঝাবে


সীতারাম ইয়ে চুরি গুয়াহাটিতে  বলেন কা দেশে বিভাজন আনবে, মমতা বলেন, দেশের মানুষ ঠিকানা বিহীন হবে

নকুল রায়, গুয়াহাটি, 3 জানুয়ারিঃ কেন্দ্রীয় সরকার অনলাইনে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনটি কার্যকর করার  চেষ্টা করছে। আজ রাজস্থানের যোধপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, আইনটির সমর্থনে বিজেপি আগামী 5 জানুয়ারি থেকে তিন কোটি মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে বোঝাবে। তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে বলেন, এক জনগোষ্ঠীকে খুশি করার জন্যে রাজনীতি করছেন, বাঙলি হিন্দুদের জন্যে কোনো দরদ নেই। অপরদিকে মমতা আজ শিলিগুড়িতে এক মিছিলে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষকে ঠিকানাহীন করতে চাইছেন, নাগরিকের অধিকার চাইতে গেলে বলা হচ্ছে, পাকিস্তানের চোর। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দক্ষিণ ভারতে  বলেছেন,  পাকিস্থানে যখন ধর্মের নামে হিন্দুধর্মালম্বীদের উপর চরম অত্যাচার হচ্ছে,  তখন কংগ্রেস, বামপন্থী দলগুলো চুপ কেন? আজ গুয়াহাটিতে কা-র তীব্র বিরোধিতা করে সি.পি.এম.-এর সাধারণ সম্পাদক  সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দোকানের মতো, একটি কিনলে একটি ফ্রী-র জায়গায় দুটি ফ্রী দিচ্ছেন এন.আর.সি.-র সঙ্গে কা এবং এন.পি.আর. ফ্রী। তিনি প্রশ্ন তোলেন ইসলামিক দেশে কি শুধু হিন্দুরা অত্যাচারিত হয়? মুসলিমরা হয় না? মায়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমরা অত্যাচারিত হচ্ছে না? ভারতে দলিতরা কি  অত্যাচারিত হয় না?  এই আইন হিন্দু মুসলিমদের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করবে বলে সীতারাম অভিযোগ করেন।  গুয়াহাটিতে বিজেপি-র কার্যকরী সভাপতি জে. পি. নাড্ডা আসছেন। এক জনসভায় ভাষণ দেবেন। অসম কংগ্রেস আজ থেকে গণ স্বাক্ষর অভিযান শুরু করেছে। প্রথম স্বাক্ষর করে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ   দাবি করেন,  আগামীতে কংগ্রেস ক্ষমতা দখল করবে।

No comments

Powered by Blogger.