Header Ads

ধর্ষণে বিশ্বের রাজধানী ভারত ! রাহুলের বিতর্কিত মন্তব্যে বইছে সমালোচনার ঝড় !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়ঃ

একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে দেশে। নির্ভয়া-কাণ্ডের পরও শিক্ষা নেয়নি দেশ। হায়দরাবাদে মহিলা চিকিৎসককে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মেরেছে ধর্ষকরা। তারপর উন্নাও-কাণ্ডে ধর্ষিতাকে আদালতে যাওয়ার পথে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। এইসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই এবার গর্জে উঠলেন রাহুল গান্ধী। 

প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকারের সমালোচনা করে বলেন, এনডিএ সরকারের আমলে ভারত ধর্ষণের রাজধানীতে পরিণত হয়েছে। গোটা বিশ্বের কাছে লজ্জার যে ভারতে আজ একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে। কোনও দৃকপাত নেই সরকারের। মহিলা নিরাপত্তায় মোদী সরকার শোচনীয়ভাবে ব্যর্থ।
একদিন আগেই উত্তরপ্রদেশের উন্নাওকে ধর্ষণের রাজধানী বলে কটাক্ষ করা হয়। উন্নাওয়ে এত ধর্ষণ বা যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে যে অখ্যাত উন্নাও খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে।
উল্লেখ্য, ২০১৯-এর জানুয়ারি থেকে নভেম্বর পর্যন্ত উন্নাওতে ৮৬টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলাটি এখন 'ধর্ষণের রাজধানী' হিসাবে পরিচিত হয়ে উঠেছে। খবরে প্রকাশ, ১১ মাসে শুধু এই একটি জেলা থেকে মহিলাদের যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটেছে ১৮৫টি।
উন্নাও জেলায় বৃহস্পতিবার ধর্ষণের শিকার মহিলার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এছাড়া এই জেলায় কুলদীপ সেঙ্গারের ঘটনা ঘটে। সেগুলি ছাড়াও কয়েকটি মামলা হয়েছে। অভিযোগ, রাজনীতি এখানে অপরাধের সূত্রপাত করেছে। রাজনীতিবিদরা রাজনৈতিক সংখ্যা নির্ধারণের জন্য অপরাধকে ব্যবহার করছে এবং পুলিশ তাদের গোলাম হয়ে পড়েছে।
বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গারের সাথে জড়িত উন্নাও ধর্ষণ মামলাটি এর সর্বোত্তম উদাহরণ। এবার কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধীও গর্জে উঠলেন মোদী সরকারের বিরুদ্ধে। মোদী সরকারকে নিশানা করতে গিয়ে তিনি দেশকে নিয়েও বিতর্কিত কথা বলে ফেলেছেন। তিনি বলেন, ভারত এখন ধর্ষণে বিশ্বের রাজধানী হয়ে উঠেছে। তাঁর এই মন্তব্যের পর সমালনোচনার মুখেও পড়েন তিনি। তিনি দেশকে ছোট করেছেন বলে সমালোচনার ঝড় উঠেছে !

No comments

Powered by Blogger.