Header Ads

অখণ্ড বিকাশ পরিষদর বলিদানি শিখ সাহেবজাদা জোড়োয়ার সিংহ ও সাহেবজাদা ফতেহ সিংহ নমন অনুষ্ঠান

নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, ধর্মনগর : সর্ব ভারতীয় সামাজিক সংস্থা অখণ্ড বিকাশ পরিষদ ২৬ ডিসেম্বর বিকালে উত্তর ত্রিপুরা জিলা পরিষদ কনফারেন্স হলে এক অভিনব শ্রদ্ধানুষ্ঠান হয়। 
পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল শিশু বলিদানের উদাহরণ শিখ সম্প্রদায়ের দশম গুরু শ্রী গুরু গোবিন্দসিংহজির চার পুত্রের কনিষ্ঠ দ্বয় পুত্র সাহেবজাদা জোড়োয়ার সিংহ (৮ বছর) এবং সাহেবজাদা ফতেহ সিংহ মাত্র (৫ বছর ১৪ দিন) বয়সে ১৮০০ শতাব্দীর চমকৌরের যুদ্ধের সময় দিল্লির সম্রাট ঔরংগজেবের সিপাহশালার ওয়াজির খান সাহেবজাদাদের ইসলাম কবুল না করার অপরাধে ৭ দিন ডিসেম্বর মাসের তীব্র শীতের রাতে শীতবস্ত্রহীন ও  অনাহারে অকথ্য নির্যাতনের পর ২৬ ডিসেম্বর প্রকাশ্য সভায় ইমাম দ্বারা ফতোয়া জারি করে জল্লাদকে নির্দেশ করে, সাহেবজাদাদের ইটের প্রাচীর তুলে শ্বাসরুদ্ধ করে মেরে ফেলার জন্য। তাতেও ব্যর্থ হলে জল্লাদ ধারালো ছুরি দিয়ে তাদের গলা কেটে মেরে ফেলা হয়। 
এই দিনটি ভারতের বীর বলিদানিদের ইতিহাসে চির-অমর হয়ে থাকবে আগামী প্রজন্মকে সাহসী করে তুলতে ও বলিদানের এই ইতিহাস। পাঠ্যপুস্তকেও যেন সংকলন করা হয় এই ইতিহাস ও এই পবিত্র দিনকে কেন্দ্র সরকার শিশু-দিবস হিসাবে ঘোষণার দাবি করা হয় । 
উক্ত অনুষ্ঠান সংস্থার সভাপতি ক্রিষ্ণজ্যোতি ভট্টাচার্য্য, সাধারণ সংপাদক কান্তি গোপাল দেবনাথ ও কোষাদক্ষ পার্থসারথী চৌধুরীর উদ্যোগে আরএসএস প্রচারক শ্রী রাম সিংজি ও শ্রী বিজয় পাল তথা বিএসএফ ১৬৬ ও ২০তম ব্যাটালিয়নের কমান্ডেন্ড সহ শিখ জওয়ান তথা উত্তর ত্রিপুরা জেলা পরিশসদের সভাধিপতি শ্রী ভবতোষ দাস সহ ধর্মনগর শহরের বুদ্ধিজীবী মহলের উপস্থিতিতে সম্পন্ন হয়।

No comments

Powered by Blogger.