Header Ads

নানাবতী কমিশনের ফাইনাল রিপোর্ট পেশ গুজরাত বিধানসভায় ! গোধরা কাণ্ডে নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়ঃ

গোধরা হিংসা ক্লিনচিট পেলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০০২ সালে গোধরায় হিংসার ঘটনা ঘটে। সেই সময় গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন নরেন্দ্র মোদী। সেই হিংসার তদন্ত গঠিত হয়েছিল বিচারপতি নানাবতীর কমিশন। 

এদিন গুজরাত বিধানসভায় সেই কমিশনের ফাইনাল রিপোর্ট জমা পড়ে। গুজরাতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী প্রদীপসিন জাদেজা রিপোর্টটি পেশ করেন বিধানসভায়। প্রথম রিপোর্ট পেশ হয় ২০০৮ সালে নানবতি-মেহতা কমিশনের প্রথম রিপোর্ট ২০০৮ সালে পেশ করা হয়েছিল।
প্রথম রিপোর্টে ছিল গোধরায় ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়ার ঘটনার কথা। পরিকল্পনা করে সবরমতী এক্সপ্রেসের এস-সিক্স কামরায় আগুন লাগানোর কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। 
প্রথম পার্টেও তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছিল। ফাইনাল রিপোর্টেও ছাড় মোদীকে।
হিংসার চূড়ান্ত রিপোর্টেও ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছে মোদীকে। বলা হয়েছে, হিংসা কোনওভাবেই তৈরি করা হয়নি। রিপোর্টে বলা হয়েছে, আরবি শ্রীকুমার, রাহুল শর্মা, সঞ্জীব ভাট, এই তিন পুলিশ আধিকারিকের ভূমিকাও খতিয়ে দেখা হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, মোদী গোধরায় গিয়েছিলেন, যদিও প্রশাসন সে সস্পর্কে জানত না। অভিযোগ তোলা হয়েছিল মোদী এস-সিক্স পর্যবেক্ষণ করেন প্রমাণ লোপাটের জন্য। যদিও এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানানো হয়েছে।
হত্যাকাণ্ডের পর গঠন করা হয়েছিল কমিশন ২০০২ সালে গুজরাতে হত্যাকাণ্ডের পরেই নানাবতি-মেহতা কমিশন গঠন করা হয়েছিল।

No comments

Powered by Blogger.