Header Ads

আত্মসমালোচনার সুর শোনা গেল দিলীপ ঘোষের কণ্ঠে !!

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়ঃ

উপনির্বাচনে তৃণমূলের কাছে তিনটি আসনেই হেরেছে বিজেপি। এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও দুই কেন্দ্রে কেন হার মানতে হল তাদের, এই প্রশ্নের উত্তরে দিলীপ ঘোষ সাফ জানালেন, অনভিজ্ঞতাই তাঁদের হারিয়েছে উপনির্বাচনে। জেতার পরও আমরা আসন ধরে রাখতে পারিনি। ছ-মাসেই পিছিয়ে পড়েছি, তার জন্য দায়ী আমাদের অনভিজ্ঞতাই। 

কোথায় ভুল ছিল সে সম্পর্কে আত্মসমালোচনার সুরে দিলীপ ঘোষ বলেন, আমাদের খতিয়ে দেখতে হবে কোথায় ভুল ছিল। কেন আমরা পিছিয়ে পড়লাম।  একইসঙ্গে তিনি এনআরসিতে মমতার ভয় প্রদর্শন ও প্রশাসনকে ব্যবহার করে ভোট করানোকেও দায়ী করেছেন।
তিনি বলেন, এনআরসি নিয়ে মিথ্যা ভয় দেখিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে তিনি স্পিকটি নট। কিন্তু এই মিথ্যা দিয়ে তিনি বেশিদিন সত্যকে চেপে রাখতে পারবেন না। আমরা মানুষের কাছে যাব, তাঁদের বোঝাব, আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, তারপর এনআরসি হবে। প্রত্যেক হিন্দু শরণার্থীই নাগরিকত্ব পাবেন।
তিনি বলেন, এটা ঠিক যে এনআরসি ইস্যু সেভাবে ছিল না খড়গপুরে। সেখানে প্রেস্টিজ ফাইটে আমরা হেরে গিয়েছি। বিজেপির পকেট এরিয়াও তৃণমূল দখল করে নিয়েছে। তা হয়েছে খড়গপুরে ২৭টি বুথে রিগিংয়ের কারণে। বিকেল পাঁচটার পর বহু বুথে রিগিং হয়েছে। তৃণমূলের লোকও আমাদের এজেন্ট হয়ে বসে পড়েছিল। ফলে তারা রিগিংয়ের খবর দেয়নি।

No comments

Powered by Blogger.