Header Ads

বোন ম্যারো ট্রানস্প্লান্ট অসমের ৩০এর বেশী শিশুকে করেছে নতুন জীবন প্রদান



দেবযানী পাটিকর

বোন ম্যারো বা মেরুদন্ডের মজ্জা ট্রানস্প্লান্ট বহু জীবনবিনাশী রোগের জন্ম দেওয়া কর্কট রোগ ও অন্যান্য  রোগের সমস্যার সম্ভাব্য প্রতিকারের বিকল্প প্রদান করা এক অনবদ্য চিকিৎসা। লিউকোমিয়া বা রক্তের কর্কট রোগ ও ,রক্তের বিভিন্ন রোগ যেমন থ্যালাসেমিয়া, জেনেটিক রোগ যেমন ইমিউন ডেফিসিয়েন্সি ইত্যাদি জীবনবিনাশী রোগ এই  বোন ম্যারো দ্বারা প্রতিকার করতে পারা যায। উল্লেখ্য যে এ ধরনের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত অসমের ৩০ জনেরও বেশি শিশুকে এভাবে হাড়ের মজ্জা সংরোপনের মাধ্যমে নতুন জীবন প্রদান করেছে ব্যাঙ্গালোরের নারায়না হেল্থ সিটির মজুমদার শ্ব ক্যানসার সেন্টারের অংকলজি বিভাগ আর বোনম্যারো ট্রান্সপ্লান্টেশন  পেডিয়াত্রিক হেমাটলজি বিভাগের সঞ্চালক তথা বর্ষিয়ান চিকিৎসক ডঃ সুনীল ভাট। শনিবার গুয়াহাটির টাউন ক্লাবের প্রেক্ষাগৃহে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে  একথা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করেন ডঃ সুনীল ভাট। উল্লেখ যে আসামের এই সমস্ত গরীব শিশুরা বেশি ভাগই থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত ছিল। থালাসেমিয়া হচ্ছে  এমন একটি রোগ যার ফলে রোগীর দেহে লোহিত রক্তকণিকার উৎপাদন কম হয়ে যায় আর এই রক্ত কণিকার নষ্ট হবার পরিমাণ বৃদ্ধি পায় ।
                            



এই রোগের চিকিৎসায় ছাড়া দু বছরের মধ্যে রোগীর মৃত্যু হয়। এই সমস্ত রোগীদের  সমস্ত জীবনেই প্রত্যেক তিন বা চার সপ্তাহ পরে পরে দেহের সমস্ত রক্ত পরিবর্তন করতে হয়। একটা সময়ের পরে দেহে বারেবারে রক্ত পরিবর্তন করার ফলে রক্তে লৌহের পরিমাণ প্রয়োজনের থেকে বেশি হয়ে যেতে পারে যার ফলে যকৃৎ ও হৃদযন্ত্রকে আক্রমণ করার সাথে সথে মৃত্যুর কারণ হতে পারে।আজকের আয়োজিত সংবাদনেল  সম্মেলনে ডঃ সুনীল ভাট  বলেন যে বোন ম্যারো হচ্ছে উচ্চ শঙ্কা পূর্ণ  লিউকোমিয়া ,থ্যালাসেমিয়া ,ইমিউনো ডেফিসিয়েন্সি আদি  জীবনবিনাশী রোগের একমাত্র চিকিৎসা পদ্ধতির দ্বারা অসম  সরকারের সহযোগিতায় ত্রিশের অধিক শিশুর জীবন রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। উল্লেখ্য যে  সাধারণত সম্পর্কিত সম্বন্ধ যেমন দাতা  ও পরিবারের বাইরের লোকেরা যার রক্তের মিল থাকে তারা দিতে পারেন । উল্লেখ্য যে বাঙালোরে নারায়ানা হেলথ সিটি শ্ব মজুমদার  ক্যান্সার সেন্টার হচ্ছে ভারতের ভিতরে সর্ববৃহৎ বোনম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট কেন্দ্র এবং বর্তমানে এই কেন্দ্রে এখন পর্যন্ত ১২০০ বেশী বোনম্যারো  ট্রানস্প্লান্ট করা হয়েছে ।

No comments

Powered by Blogger.