Header Ads

পৃথক ডিমারাজি রাজ্য গঠনের দাবিতে অটল ডিএইচডি-র প্রাক্তন অধ্যক্ষ দিলীপ নুনিসা

 বিপ্লব দেব, হাফলংঃ ডিমারাজি গঠনের দাবিতে অটল রয়েছেন ডিমা হালম দাওগা (ডিএইচডি)-র প্রাক্তন অধ্যক্ষ দিলীপ নুনিসা। কোনও অবস্থায় ভারতের ভিতরে পৃথক ডিমারাজি গঠনের দাবি থেকে সড়ে আসছেন না দিলীপ নুনিসা। এক সময় ডিমা রাজি রাজ্য গঠনের দাবিতে পূর্বের উত্তর কাছাড় পার্বত্য জেলা তথা বর্তমান ডিমা হাসাও জেলায় সশস্ত্র সংগ্রাম শুরু করেছিল ডিমা হালম দাওগা। সে সময় পাহাড়ে অনেক রক্ত ঝড়ে ছিল। দীর্ঘ দিন ডিএইচডি-র এই সশস্ত্র আন্দোলন চলার পর ২০১২ সালে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে ডিএইচডি-র মস চুক্তি সাক্ষরিত হয়। কিন্তু দিলীপ নুনিসার অভিযোগ এই মস চুক্তি সাক্ষরিত হওয়ার সাত বছর পার হয়ে যাওয়ার পরও এই চুক্তিতে যা যা লিপিবদ্ধ হয়েছিল তার সফল রূপায়ন হয়নি। 
 
 
বুধবার ভেঙ্গে দেওয়া ডিএইচডি-র নেতা ও ক্যাডারদের নিয়ে গঠিত হালালি প্রগ্রেসিভ ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির সভাপতি নির্বাচিত হন দিলীপ নুনিসা। তিনি বলেন এবার তার নেতৃত্বে পৃথক ডিমারাজি রাজ্য গঠনে গনতান্ত্রিক আন্দোলন চলবে। দিলীপ নুনিসা বলেন পৃথক ডিমারাজি রাজ্য গঠনের দাবি থেকে তিনি একচুল ও সড়ে আসবেন না। প্রাক্তন সতীর্থদের নিয়ে তার এই গনতান্ত্রিক আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলে মন্তব্য করেন দিলীপ নুনিসা। বৃহষ্পতিবার হাফলঙে এক আলাপচারিতায় এই প্রতিবেদকে  দিলীপ নুনিসা বলেন দীর্ঘ কয়েক দশক ডিমাসা জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ে এবং পৃথক ডিমারাজি গঠনের দাবিতে সশস্ত্র লড়াই চালিয়ে যাবার পর ডিএইচডি অস্ত্র ছেড়ে জাতীয় জীবনে মূল স্রোতে ফিরে এসে ২০১২ সালের ৮ অক্টোবর কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের সঙ্গে সমঝোতাপত্র সাক্ষর করে ডিএইচডি। তবে এই সমঝোতাপত্র (এমওএস) সাক্ষরিত হওয়ার সাত বছর পার হওয়ার পর এর সফল রূপায়ন হয়নি এমনকি সমঝোতাপত্রে লিপিবদ্ধ হওয়া ডিএইচডি-র সদস্যদের উপরে থাকা সব মামলা প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ থাকলে এসব মামলা এখন প্রত্যাহার করা হয়নি। যার দরুন আইনি সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ডিএইচডি-র সদস্যদের এবং বিভিন্ন সময়ে হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছে ডিএইচডি-র সদস্যদের বলে অভিযোগ তুলেন দিলীপ নুনিসা। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন সরকারের সঙ্গে চুক্তি সাক্ষরিত হওয়ার সাত বছর পার হয়ে যাওয়ার পর ও সরকারের পক্ষ থেকে ডিএইচডি সদস্যদের পূনর্বাসনের জন্য কোনও পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়নি। তাই এবার ভেঙ্গে দেওয়া ডিমা হালম দাওগার সিভিল উইয়ং হালালি প্রগ্রেসিভ ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় গৃহমন্ত্রী অমিত শাহ-র সঙ্গে অবিলম্বে সাক্ষাৎ করে সাক্ষরিত সমঝোতা পত্রের সফল রূপায়নের দাবি জানাবেন বলে জানান ডিএইচডি-র প্রাক্তন অধ্যক্ষ দিলীপ নুনিসা।

No comments

Powered by Blogger.