Header Ads

আয়ুষ্মান ভারত নিয়ে মমতার সরকারকে তোপ ধনকরের


বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়

এবার স্বাস্থ্য নিয়ে সংঘাত ! আয়ুষ্মান ভারত 
নিয়ে মমতার সরকারকে তোপ ধনকরের !! 
ফের নিজের সরকারের প্রধানের প্রতি খর্গ হস্ত রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। এবারের বিষয় স্বাস্থ্য। রাজ্য সরকার স্বাস্থ্যে কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প গ্রহণ না করায় এদিন সমালোচনায় সরব হয়েছেন রাজ্যপাল। তিনি বিষয়টি নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ করেছেন।
কেন্দ্রীয় সরকারের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প রাজ্যে আটকে যাওয়া নিয়ে এদিন ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন রাজ্যপাল। এখানে সবকিছুতেই রাজনীতি হয়। বলেছেন তিনি। স্বাস্থ্যে রাজনীতির অভিযোগ তুলে বলেছেন, অন্তত এই বিষয়টিকে রাজনীতির বাইরে রাখা উচিত।
রাজ্যপাল এদিন জানিয়েছেন, তিনি রাজ্যের রাজ্যপাল হয়ে এসেছেন ১০০ দিন এখনও হয়নি। এর মধ্যে তাঁর রাছে স্বাস্থ্যে সাহায্যের জন্য প্রায় ৩ হাজার আবেদন জমা পড়েছে।
রাজ্যপাল বলেছেন তিনি সাধারণ মানুষের সুবিধাকে অগ্রাধিকার দেওয়ার পক্ষে। মানুষের জন্য যে টাকাই আসুক না কেন, তার যথাযথ ব্যবহার হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর আশা সরকার মানুষের সুবিধাকেই অগ্রাধিকার দেবে।
রাজ্যে তাঁর সরকার যে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প অনুসরণ করবে না, তা লোকসভা ভোটের আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানুয়ারি মাসে কৃষ্ণনগরে সরকারি সভায় মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন রাজ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প। তাঁর অভিযোগ ছিল আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে রাজ্য সরকার ৪০ শতাংশ খরচ দিলেও, তাকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে প্রচার করা হচ্ছে। বাংলার প্রকল্প টুকলি করারও অভিযোগ করেছিলেন তিনি।
রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছিল মোদী অমিত শাহরা। লোকসভা ভোটের প্রচার মঞ্চ থেকেই তাঁরা এই সমালোচনা করেছিলেন। রাজনীতি করতে গিয়ে কোটি কোটি মানুষকে বঞ্চিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছিলেন তাঁরা।
সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ থেকে চলচ্চিত্র উৎসব, তাঁকে আমন্ত্রণ না জানানোর অভিযোগ করে সরব হতে দেখা গিয়েছে রাজ্যপালকে। পাশাপাশি জগদীপ ধনকড়ের অভিযোগ ছিল দীপাবলিতে প্রধানমন্ত্রী প্রথা মেনে রাষ্ট্রপতিকে শুভেচ্ছা জানালেও, রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যপালকে শুভেচ্ছা জানাননি। যাদবপুর দিয়ে যে সংঘাত শুরু হয়েছিল তা এখনও চলছে।

No comments

Powered by Blogger.