Header Ads

রাষ্ট্রদ্রোহিতা ইস্যুতে বিশিষ্টজনেরা গর্জে উঠলেন ! নাসিরুদ্দিন-রোমিলাদের নয়া চিঠি প্রধানমন্ত্রীকে

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : কয়েকদিন আগেই বিহারের মুজফ্ফরনগরের এক আদালতে দেশের ৫০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়। এই মামলায় অপর্ণা সেন থেকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, তথা অনুরাগ কশ্যপের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ ওঠে। এবার সেই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে দেশের ১৮০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব একটি খোলা চিঠি পাঠান প্রধানমন্ত্রীকে।
ইন্ডিয়ান কালচারাল কমিউনিটি সংগঠনের তরফে অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ ও অধ্যাপিকা রোমিলা থাপাররা দেশদ্রোহিতার নামে বিশিষ্টজনদের হেনস্থা করার অভিযোগ তোলেন। তাঁদের দাবি, গণপিটুনির বিরুদ্ধে যেহেতু বিশিষ্টরা প্রতিবাদের ঝড় তুলেছিলেন তাই তাঁদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ তোলা হয়েছে ।
এই ঘটনার প্রেক্ষিতে বিশিষ্টজনরা ফের প্রধানমন্ত্রীকে আরো একটি খোলা চিঠি পাঠিয়েছেন। ইন্ডিয়ান কালচারাল কমিউনিটি সংগঠনের তরফেই পাঠানো হয়েছে এই চিঠি। তাঁদের দাবি, সাধারণ নাগরিক হিসাবে অপর্ণারা প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন গণপিটুনির বিরুদ্ধে। এতে তাঁদের কেন হেনস্থা করা হচ্ছে, তা খোলা চিঠিতে জানতে চান নাসিরুদ্দিন, রোমিলারা।
এর আগে মনিরত্নম, অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্য়ায়, অনুরাগ কশ্যপ সহ ৫০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের খোলা চিঠি গিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর কাছে। এবার, প্রধানমন্ত্রীকে ১৮০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের চিঠি গিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে।
নতুন যে চিঠিটি প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়েছে, তাতে ১৮০ জনের মধ্যে প্রেরক হিসাবে নাম রয়েছে, অসোক বাজপেয়ী, জেরি পিন্টো, ইরা ভাস্কর, কবি জিৎ থায়ালি , ও শামসুল ইসলামের। গতবারের চিঠির পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে কড়া বার্তা এসেছিল বিশিষ্টজনেদের প্রতি। এবার প্রশ্ন উঠছে, ১৮০ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের চিঠি প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাওয়ার পর কী ঘটতে পারে, তা নিয়ে।

No comments

Powered by Blogger.