Header Ads

অর্থনৈতিক মন্দার মোকাবিলায় সিনেমার ‘বক্স অফিস’ই ঢাল, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ব্যাখ্যা !

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : অর্থনৈতিক মন্দার অভিযোগ ফুৎকারে উড়িয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। তিনি বলেন, কোথায় মন্দা। মন্দা হলে, সিনেমা বক্স অফিসে হিট হতে পারে! সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া তিন সিনেমার উদাহরণ দিয়ে দেশের আর্থিক মন্দা নিয়ে প্রশ্নবাণ সামলালেন মোদী সরকারের মন্ত্রী। সিনেমার উপার্জনকেই করলেন অর্থনীতির ময়দানে ঢাল।
দেশে অর্থনৈতিক মন্দা চলছে বলে বিভিন্ন মহলে শোরগোল শুরু হয়েছে। গত কয়েকমাস ধরেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে উৎপাদন হার উল্লেখযোগ্য হারে কমছে। এই পরিসংখ্যান উড়িয়ে রবিশঙ্করের যুক্তি বিগত তিনটি সিনেমা বক্স অফিসে সুপার হিট, দারুন উপার্জন হয়েছে। এই ঘটনাই প্রমাণ করছে কোনও অর্থনৈতিক মন্দা নেই। 
তিনি আরও ব্যাখ্যা করে বলেন, ২ অক্টোবর ৩টি সিনেমা ১২০ কোটি টাকা আয় করেছে। তাই অর্থনৈতিক মন্দার মতো জিনিস নেই ভারতে নেই। অর্থনৈতিক মন্দা থাকলে কখনই চলচ্চিত্র শিল্পে এই বিরাট উপার্ন সম্ভব হত না। রবিশঙ্কর প্রসাদ নিজেকে সিনেমা অনুরাগী ব্যাখ্যা করে বলেন, বাজপেয়ী মন্ত্রিসভায় আমি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের দায়িত্বে ছিলাম। তাই বিষয়টি একটু-আধটু আমিও বুঝি। 
এদিকে আইনমন্ত্রীর এহেন যুক্তিকে খণ্ডন করেছে অনেকেই। রবিশঙ্করের তত্ত্বকে হাস্যকর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। একদিন আগেই পরিসংখ্যান মন্ত্রক আগস্ট মাসের শিল্প-উৎপাদনের তথ্য পেশ করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, দেশে শিল্প উৎপাদনের হার ১.১ শতাংশ কমেছে, যা গত মাসে ৪.২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল। 
অটোমোবাইল বিক্রি অগস্ট মাসে সবচেয়ে খারাপ। সবচেয়ে কমতে দেখা গেছে যাত্রীবাহী যানবাহন এবং দু'চাকার গাড়ির বিক্রি। আর্থিক মন্দার কারণে এই সেক্টরগুলিতে অবনতি লক্ষ্যণীয় বলে জানিয়েছে শিল্পসংস্থাগুলি। শিল্প সংস্থা সিয়াম জানিয়েছে, ১৯৯৭-৯৮ সালে পাইকারি গাড়ির বিক্রয় ডেটা রেকর্ডিং শুরু করা হয়েছি্ল। তার পর থেকে দেশে সামগ্রিক যানবাহন বিক্রিতে এবার রেকর্ড পতন হল।

No comments

Powered by Blogger.