Header Ads

পরিবেশ বান্ধব জুমবস্তির পূজার পঞ্চাশে পা

নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, বদরপুর : পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে পরিবেশ বান্ধব পূজার আয়োজন করেছে বদরপুর জুমবস্তি ত্রীনয়নী কালীবাড়ি দূর্গা পূজা কমিটি। ১৯৬৯ সালে এলাকার হাতে গোনা কয়েক ঘর মিলে পত্তন করেছিল এ সর্বজনীন দূর্গা পূজার। তখন আর এখনের বিস্তর ফারাক। সে সময় জুমবস্তিতে দিন দুপুরে বাঘের দেখা মিলত। এখন লোকারণ্য - জমজমাট অবস্থা। এমনিতেই এবার বাজারের হাল খারাপ। ব্যবসা পাতি নেই। যার মারাত্মক প্রভাব পড়েছে ছোট এ রেলশহরের পূজা কমিটিগুলির উপর। কোথাও বড় বাজেটের পূজা নেই। এর মধ্যে একমাত্র জুম বস্তির পূজার বাজেট পাঁচ লক্ষ ছুঁয়েছে। 
বাজারের হাল দেখে উদ্যক্তারা এলাকার বাইরে থেকে চাঁদা না তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পূজার থিম পরিবেশের প্রতি সচেতনতা বাড়ান। প্যাণ্ডেল বা প্রতিমার কোথাও সোলা বা প্লাস্টিক পলিথিন- কিছুই ব্যবহার হচ্ছে না। শুধু চট কাপড় ব্যবহার হচ্ছে। ব্যবহার হচ্ছে পরিবেশ বান্ধব রং। এখানকার পূজার বিশেষত্ব হচ্ছে প্রতিবার বিশালাকৃতি অসুর। ব্যতিক্রম হয়নি এবারও। দর্শক টানতে তৈরি হচ্ছে বারো ফুটের অসুর।  প্রতিমা তৈরি করছেন স্থানীয় শিল্পী সুভাষ পাল। এনআরসি জিএসটি দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি - এসব সমস্যার মধ্যে দুর্গা পূজার আয়োজন করতে কি রকম নাজেহাল হতে হচ্ছে মঙ্গলবার আয়োজিত প্রেসমিটে বিস্তারিত তুলে ধরেন কমিটির সভাপতি মদন চৌধুরী সম্পাদক চন্দন লাল সেন সহ সম্পাদক বাণীব্রত চক্রবর্তী, কোষাধ্যক্ষ সুনীল চন্দ্র দে, স্বপন পাল সহ অন্যান্যরা। মহা ষষ্ঠীতে পূজার উদ্বোধন করবেন প্রাক্তন মন্ত্রী গৌতম রায় বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি বিশ্বরূপ ভট্টাচার্য প্রমুখ। দুস্থদের মধ্যে এদিন থাকছে বস্ত্র বিতরণ। এছাড়া পূজার তিনদিনই থাকছে ঢালাও মহাপ্রসাদ বিতরন। পূজার পর এই মণ্ডপেই বসবে বাউল ও লোকসঙ্গীতের আসর।

No comments

Powered by Blogger.