Header Ads

আরএসএস-এ যাচ্ছেন একদার 'তৃণমূলী' সাংসদ মিঠুন চক্রবর্তী, যোগদান নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : আরএসএস-এর সদর দফতর পরিদর্শন করলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ এদিন নাগপুরে আরএসএস-এর সদর দফতরে যান এবং প্রতিষ্ঠাতা কেবি হেডগেওয়ারের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন। এক সময় তাঁর বিরুদ্ধে সারদা চিটফান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল। পরে তিনি রাজ্যসভার সদস্যপদে ইস্তফা দেন এবং সারদার চ্যানেল থেকে যে পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন তা ফিরিয়ে দেন।
এদিন নাগপুরে মিঠুন চক্রবর্তীর আরএসএস-এর সদর দফতর পরিদর্শন এবং প্রতিষ্ঠাতা কেবি হেডগেওয়ারের প্রতি সম্মান প্রদর্শন নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। তাহলে কি এবার আরএসএস-এ নাম লেখাচ্ছেন মিঠুন--প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। একটা সময়ে বাম আমলে তৎকালীন মন্ত্রী সুভাষ চক্রবর্তীর সঙ্গে মিঠুনের খুব ভাল সম্পর্ক ছিল। রাজ্যে তৃণমূল ক্ষমতার আসার খানিক আগে থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল মিঠুনের। পরে ২০১৪ সালে তাঁকে রাজ্যসভায় পাঠিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
মাস দুয়ের আগে প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ তথা বর্তমানে বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা মিঠুনের সঙ্গে তোলা ছবি ফেসবুক পোস্ট করেছিলেন। সেখানে ট্যাগলাইন ছিল শীঘ্র। সেই সময় মিঠুনের বিজেপিতে যোগ দান নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল।
স্বাস্থ্যের কারণ দেখিয়ে মিঠুন চক্রবর্তী রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। মূল কারণ হিসেবে উঠে এসেছিল সারদা কাণ্ডে নাম জড়িয়ে যাওয়া। আর এই পদত্যাগের পরেই রাজনীতি থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন মিঠুন। পরবর্তী সময়ে অভিনয় জগতেও তাঁকে বিশেষ দেখা যায়নি।
সারদা চিটফান্ড নিয়ে তদন্ত শুরু হতেই, ২০১৬ সালে তাঁর নাম জড়িয়ে পড়েছিল। তাঁকে দুবার ইডি জেরাও করেছিল। পরে তিনি সারদার চ্যানেল থেকে পাওয়া পারিশ্রমিক ফিরিয়ে দেন।

No comments

Powered by Blogger.