Header Ads

মোদী কি দেশনেতা, গান্ধীজিকে দিয়ে ব্যাখ্যা করলেন মমতা ! বললেন নতুন করে উপদেশের দরকার নেই

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : দেশের নেতা গান্ধীজি, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর মতো হওয়া উচিত। মেয়ো রোডে গান্ধীজির দেড়’শত তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের মঞ্চ থেকে এমনটাই বললেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ভারতে কারও নতুন করে উপদেশ দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন, উপদেশ দিতে পারেন, তারাই, যারা তা দিতে পারার যোগ্য।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিনের অনুষ্ঠানে বলেন, শান্তির জন্য লড়াই করেছেন গান্ধীজি। গান্ধীজির নীতি গণতন্ত্রকে মজবুত করে। একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানান, গান্ধীজির অহিংসার বাণী নিয়ে তিনি চলবেন। 
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ভারতবর্ষে কারও আর উপদেশ দেওয়ার দরকার নেই। উপদেশ তাঁরাই দিতে পারেন, যাঁরা উপদেশ দেওয়ার অধিকারী। জাতীয় নেতা তাঁরাই হন, যাঁরা দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার অধিকারী। 
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের নেতা গান্ধীজির মতো, নেতাজির মতো হওয়া উচিত। তিনি বলেন, এঁরা দেশকে নেতৃত্বে দিয়েছিলেন, সব ধর্ম, সব বর্ণ আর সব সম্প্রদায়কে নিয়ে। অশান্তি ছড়ানো কখনও কোনও দেশনেতার উদ্দেশ্য হতে পারে না বলেও মন্তব্য করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
গান্ধীজির অহিংস মানবতার জন্য, স্বচ্ছ ধারনার জন্য ভারতের মাটিতেই শুধু নন, পৃথিবীর মানুষ তাঁকে ভালবাসেন। গান্ধীজির আন্দোলন ভাবতে শেখায়, গণতন্ত্রকে মজবুত করে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এদিনের মন্তব্য প্রসঙ্গে রাজনীতিবিদদের একাংশ বলছেন, মোদীর দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হওয়াকে একেবারেই মেনে নিতে পারেননি তিনি। পাশাপাশি দেশের বাইরে মোদীকে নিয়ে প্রশংসাসূচক কথাও মেনে নিতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের ভাষণ থেকেই তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

No comments

Powered by Blogger.