Header Ads

বিহারের বন্যায় ১৫ জেলায় রেড এলার্ট, হেলিকপ্টার সহ সমস্ত রকম সাহায্য পাঠাচ্ছে কেন্দ্র সরকার

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : বিগত কিছু দিনের ভারী বর্ষায় বিহারের অবস্থা খুবই খারাপ হয়ে পড়েছে। বন্যার মতো পরিস্থিতির মধ্যে পাটনা সহ ১৫ জেলায় রেড এলার্ট জারি করে দেওয়া হয়েছে। বন্যায় মৃতের সংখ্যা ২৯ পার হয়েছে। প্রশাসনের উপর সরকারের ক্রোধ আকাশ ছুঁয়ে ফেলেছে। সোশ্যাল মিডিয়ার লোকজন বিহার সরকার ও নেতাদের গালি গালাজ দিতে শুরু করেছে। কিন্তু নেতাদের উপর অভিযোগ তুলে যে সমস্যার সমাধান সম্ভব নয় তার এক জ্বলন্ত প্রমাণ সামনে এসে গেছে। পাটনার রাজেন্দ্রনগর থেকে এমন খবর আসছে যা সকলকে চিন্তা করতে বাধ্য করবে।
পাটনার রাজেন্দ্রনগরে এনডিআরএফ'র টিম রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদী ও ওঁর পরিবারকে উদ্ধার করেছে। এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে সুশীল কুমার মোদী তার পরিবারের সাথে বিগত ৩ দিন ধরে বাড়ির মধ্যে আটকে ছিলেন। শুধু তাই নয়, বিহারের পূর্ব মুখ্যমন্ত্রীদের বাড়িতেও বন্যার জল ঢুকে গেছে। 
পদ্মভূষণ প্রাপ্ত গায়িকা সারদা সিনহাও বন্যার জলে আটকে ছিলেন যিনি উদ্ধারের জন্য উদ্ধারকারীদের ডাকেন। অর্থাৎ স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে যে পরিস্থিতি সরকারের হাতে থাকলে রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী কখনো বাড়িতে ৩ দিন আটক থাকতেন না। তাই নেতাদের গালি গালাজ বা একে অপরের উপর অভিযোগ না তুলে একসাথে সমস্যার সমাধানে কাজ করা সবথেকে উত্তম কাজ হবে।
বিহার সরকার নিজের মতো করে রাজ্যের মানুষকে সাহায্য করার সমস্ত প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। কেন্দ্র সরকারও হেলিকপ্টার, পাম্প ইত্যাদি প্রেরণ করে মানুষকে উদ্ধার করার কাজে নেমেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ পাশাপাশি রাজ্যগুলির সাথে সম্পর্ক বজায় রেখে সাহায্য নেওয়ার কথা বলেছেন। 
একই সঙ্গে কেন্দ্র সরকার সমস্থ রকম সাহায্যের জন্য পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছে। বন্যা আসার আগে বিহারে একেবারে শুকনো শুষ্ক পরিস্থিতি ছিল। কারুর ধারণা ছিল না যে, হঠাৎ বন্যার পরিস্থিতি উৎপন্ন হতে পারে। রাজনৈতিক দিক থেকে লক্ষ্য করা যাচ্ছে শাসক ও বিরোধী উভয় পক্ষ একসাথে হাতে হাত মিলিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে।

No comments

Powered by Blogger.