Header Ads

মিশন ২১-এর টিমে নেতা কে, কার নেতৃত্বের ভোট, এখন থেকেই চূড়ান্ত করল বিজেপি

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : মিশন ২০২১। বাংলা থেকে তৃণমূলী শাসন উৎখাত করাই মূল লক্ষ্য বিজেপির। লোকসভা ভোট থেকে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন পেয়ে গিয়েছেন মোদী-শাহের দল। এবার তাই পাখির চোখ করেছে বিধানসভা নির্বাচনকে। ২০২১-এর এই নির্বাচনে ২০০-র বেশি আসনে জয় নিশ্চিত করাই এখন বিজেপির বঙ্গ নেতৃত্বের মূল লক্ষ্য।
কিন্তু বাংলায় এই গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনে নেতৃত্ব দেবেন কে, কে হবেন বিজেপির বাংলার মুখ, তা নিয়ে কিছুদিন ধরেই জল্পনা চলছিল। দিল্লিতে বিজেপির বঙ্গ নেতৃত্বকে তলব করে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ স্থির করে দিলেন সেইসব। বলা ভালো, বাংলায় মিশন ২০২১-এর লক্ষ্যে টিম গড়ে দিলেন তিনি।
অমিত শাহৃ স্পষ্ট করে দিয়েছেন, ২০২১ পর্যন্ত দিলীপ ঘোষ বঙ্গ বিজেপির সভাপতি থাকছেন। এমনিতেই তিনি প্রথম মেয়াদ শেষ করে ফেলেছেন। মেয়াদ বাড়িয়ে তিনি ইতিমধ্যে দ্বিতীয় দফার দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। এখন পাকাপাকিভাবে তাঁকে দ্বিতীয় দফাও শেষ করার বার্তা দেওয়া হয়েছে।
আর মুকুল রায়কে বাংলার নির্বাচন কমিটির মাথায় রেখে লোকসভা নির্বাচন সংঘটিত হয়েছিল এবার। তার সাফল্যস্বরূপ তাঁকেই ফের কমিটির মাথায় রেখে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন হবে। তিনি যেভাবে তৃণমূলকে ছোট করে বিজেপিকে বাড়িয়ে তুলছেন, তাতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বেশ আপ্লুত। তাই এই পুরস্কার পেলেন মুকুল।
এছাড়া কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে প্রচার চলছিল। সেই প্রচারকে গুজব বলে উড়িয়ে কৈলাশকেই বাংলার পর্ষবেক্ষকের দায়িত্বে রাখা হচ্ছে। অরবিন্দ মেননকেও রাখছে বিজেপি। তবে তাঁকে উত্তরবঙ্গের বিশেষ দায়িত্ব দেওয়া হবে। মোট কথা ১৯-র টিমই ২১-এ নির্বাচন করবে বিজেপির।
অর্থাৎ বাংলায় বিজেপির নেতৃত্বে থাকছেন দিলীপ। তাঁর নেতৃত্বেই কাজ করবে টিম। তবে নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে সর্বেসর্বা মুকুল রায়ই। উভয়কেই কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও অরবিন্দ মেননের সঙ্গে পরামর্শ করে চলার নির্দেশ দেন অমিত শাহ। এই চার রথীকেই বাংলার টিমের প্রথম সারিতে রেখে লড়াইয়ে নামার বার্তা দিয়েছেন অমিত।

No comments

Powered by Blogger.