Header Ads

খোঁজ মিলল বিক্রম ল্যান্ডারের, এবার করা যোগাযোগ

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : ইসরো থেকে বড়ো সুসংবাদ ! ইসরো প্রধান বলেছেন যে আমরা বিক্রম লন্ডারকে খুঁজে পেয়েছি। তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা ইনস্টিটিউট, অর্থাৎ ইসরো চাঁদে সফট অবতরণের ঠিক আগে চন্দ্রায়ণ -২ ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়েছিল। তখন থেকে কিছুই জানা যাচ্ছিল না। কিন্তু এখন ইসরো ল্যান্ডারের খোঁজ পেয়েছে। অর্বিটার, ল্যান্ডারের কিছু থার্মাল ছবিও প্রেরণ করেছে। ইসরো অর্বিটারের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করার জন্য নেমে পড়েছে।
খুব শীঘ্রই ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগ স্থাপন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। ল্যান্ডারের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর পুরো দেশ হতাশায় ভেঙে পড়েছিল। যদিও দেশের মানুষ একজোট হয়ে ইসরো’র পাশে দাঁড়িয়েছিল। 
অন্যদিকে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা ইসরো’র প্রশংসা করেছে। নাসা লিখেছে, ‘স্পেস ইজ হার্ড’। আমরা চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রায়ণ -২ মিশনে অবতরণের জন্য ইসরোয়ের প্রচেষ্টাকে প্রশংসা করি। আপনারা আমাদের আপনাদের অভিযান দিয়ে অনুপ্রাণিত করেছেন। আমরা আপনাদের থেকে অনেককিছু শিখতে পেরেছি।
চন্দ্র পৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিলোমিটার উচ্চতায় বিক্রম তার যোগাযোগ হারিয়েছিল। তবে ইসরো মিশনটি সম্পুর্ন করার প্রয়াস ছেড়ে দেয়নি। এখন ইসরো ল্যান্ডারের খোঁজ পেয়েছে। গতাকাল কে সিভান বলেছিলেন, “চন্দ্রায়ণ -২ মিশন লক্ষ্যমাত্রায় শতভাগ সাফল্যের কাছাকাছি এসেছে। এই মিশন ব্যর্থ হয় নি। আমরা চলমান মিশনগুলিতে ব্যস্ত এবং চন্দ্রায়ণ -২ এর পরে, পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুসারে গগণায়ান মিশনের কাজ চলবে। গগণায়ান সহ ইসরোর বাকি মিশনগুলি সময়সূচি অনুসারে হবে।”  ইসরো প্রধান বলেছেন, আগামী ১৪ দিনের মধ্যেই বিক্রম ল্যান্ডারের সাথে যোগাযোগ সম্ভব হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

No comments

Powered by Blogger.