Header Ads

একদিন হয়তো ‘ব্যাঙ্ক’ উঠে যাবে, শুধু একটা ‘অ্যাপস’ ঘুরে বেড়াবে, শঙ্কা মমতার

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : দেশের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো ভেঙে পড়েছে, জিডিপি নেমেছে তলানিতে। অর্থনীতি কঠিন পরিস্থিতির মুখে দাঁড়িয়ে। এই অবস্থায় ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। এই ইস্যুতে কেন্দ্রকে একহাত নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে ডিজিটাল ইন্ডিয়ার রমরমাকেও বিঁধলেন তিনি।
শুক্রবার তৃণমূল সরকারিকর্মী সংগঠনের সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তিনি বলেন, একদিন দেখবেন ব্যাঙ্কটাই থাকবে না। খালি একটা অ্যাপস ঘুরে বেড়াবে। তারপর দেখবেন, ওই অ্যাপসও আর খুলছে না। তখন কোথায় যাবেন সাধারণ মানুষ? প্রশ্ন তোলেন মমতা। 
মমতা বলেন ব্যাঙ্কের অফিস গুটিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ব্যাঙ্ককে করে দেওয়া হচ্ছে অ্যাপস নির্ভর। অফলাইন ব্যবস্থাকে আইসিইউতে পাঠিয়ে মোবাইল ব্যাঙ্কিং, নেট ব্যাঙ্কিংয়ের রমরমা যেভাবে বাড়ানো হচ্ছে, তাতে এতটা মহাভীতিও রয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ব্যাঙ্কিং পরিষেবা যেহেতু অ্যাপ নির্ভর হয়ে যাচ্ছে, তা চললে ভালো। 
কিন্তু কোনওদিন যদি এই অ্যাপসও আর না খোলে, তখনই গ্রাহকদের মাথায় হাত পড়বে। ব্যাঙ্ক বলে তো কিছু থাকছে না, সবই অ্যাপস। তাই আশঙ্কা এড়ানোর জায়গা নেই। সমস্যা হলে ব্যাঙ্কের ঠিকানা খুঁজে পাওয়াই ভার হয়ে দাঁড়াবে তা হলে। তখন মোদী সরকারকে আর খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হবে। 
এদিন কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে পরোক্ষে নিশানা করে মমতা বলেন, আমি সব হারাতে রাজি, কিন্তু কথা হারাতে রাজি নই। রাজি নই বিশ্বাসযোগ্যতা হারাতে। তাই যতটা বলি, ততটাই কাজ করি। প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচনের পর পালিয়ে যাব এমন মনোভাব নেই। ভোটের জন্য ভাঁওতা দেওয়া পছন্দ করি না।

No comments

Powered by Blogger.