Header Ads

সন্ত্রাসবাদের কেন্দ্রস্থল থেকে কাশ্মীর নিয়ে ভাষণ বন্ধ হোক, পাকিস্তানকে জবাব ভারতের

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার কমিশনে পাকিস্তানকে কড়া জবাব দিল ভারত। ভারতের বিদেশ সচিব বিজয় ঠাকুর সিং ইউএন-এর মঞ্চে পাকিস্তানকে লক্ষ্য করে বাণ ছাড়লেন। তিনি বলেন, পাকিস্তান হল সন্ত্রাসবাদের কেন্দ্রস্থল। সেখান থেকে কাশ্মীর নিয়ে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করা হচ্ছে। কাশ্মীরের পরিস্থিতি এমন নয়, যেমনটা পাকিস্তান ব্যাখ্যা করছে।
জেনেভাতে ইউএনএইচআরসি-র সদর দফতরে ভারতের বিদেশ সচিব বিজয় ঠাকুর সিং বলেন, কাশ্মীরে ৩৭০ বাতিল করার সিদ্ধান্তটি আমাদের সংসদ গ্রহণ করেছে। কাশ্মীর পুরোপুরি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। রাজ্যের পরিষেবা ও আর্থ-সামাজিক সাম্যতা তৈরির জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 
এদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং মঙ্গলবার বলেন, কাশ্মীর কার্ফিউয়ের অধীনে নেই। কেবল কিছু নিষেধাজ্ঞার অধীনে রয়েছে। তিনি ভারতবিরোধী শক্তিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন যে, শীঘ্রই তাদের মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। এদিন কাশ্মীর নিয়ে রাষ্ট্রসংঘেও মিথ্যা ভাষণ দেয় পাকিস্তান। তার প্রতিবাদে গর্জে ওঠে ভারত।
উল্লেখ্য, কাশ্মীর নিয়ে রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের হস্তক্ষেপ চাইছে পাকিস্তান। চিনও পাকিস্তানের সঙ্গে একই দাবি জানিয়েছিল। এছাড়া অন্য কোনও দেশের সমর্থন আদায় করতে পারেনি পাকিস্তান। আন্তর্জাতিক মঞ্চে একঘরে হতে হয়েছিল পাকিস্তানকে। 
তারপরও এদিন পাকিস্তান রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদে দাবি জানায়, কাশ্মীর নিয়ে রাষ্ট্রসংঘের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন। আবারও পাকিস্তানের দাবি সমূলে উপড়ে ভারত জানিয়ে দেন কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তাই পাকিস্তান নাক গলানো বন্ধ করুক।

No comments

Powered by Blogger.