Header Ads

ভারত-বিরোধী অভিযান চালানোর জন্য গিলানি সমেত আটটি ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ

বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায় : জম্মু কাশ্মীরে ভারতের বিরুদ্ধে প্রপোগান্ডা যারা চালায়, তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। ভারত সরকার ট্যুইটারে গুজব ছড়ানো আটটি অ্যাকাউন্ট সাস্পেন্ড করার আবেদন করেছে ট্যুইটার কর্তৃপক্ষকে। ওই আটটি অ্যাকাউন্টের মধ্যে বিচ্ছন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলী শাহ গিলানির ট্যুইটার অ্যাকাউন্টও আছে।
যেই আটটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার জন্য ট্যুইটার কর্তৃপক্ষকে আবেদন করা হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে ভয়েস অফ কাশ্মীর (@kashmir787), মাধিহা শাকিল খান (@Red4Kashmir), আরশাদ শরীফ (@arsched), মেরি স্কলী (@mscully94), সৈয়দ আলী শাহ গিলানি (@sageelaniii), সদফ (@sadaf2k19), রিয়াজ খান (RiazKha723), আর রিয়াজ খাঁ (@RiazKha61370907) এর অ্যাকাউন্ট আছে। আইটি মন্ত্রালয় ট্যুইটার কর্তৃপক্ষকে এই আবেদন আইটি আইনের মাধ্যমে করেছে।
সরকার এই পদক্ষেপ নিয়েছে কারণ, এই সমস্ত ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে কাশ্মীর আর কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার জন্য ভারতের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক দ্বারা করা এই সুপারিশের উত্তরে ট্যুইটার জানায়, ‘আমরা গোপনীয়তা আর সুরক্ষার কারণে ব্যাক্তিগত ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট নিয়ে কোন মন্তব্য করিনা।”
কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার আগে থেকেই এই সমস্ত ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ভারত বিরোধী কার্যকলাপ চালানো হত। এরা মুখে আজাদ কাশ্মীর চাইলেও শেষে গিয়ে পাকিস্তানের সমর্থনেই কথা বলত। আর এদের মধ্যে অন্যতম হল সৈয়দ আলী শাহ গিলানি। কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার আগে গিলানি একটি বিতর্কিত ট্যুইট করে বিশ্বের সমস্ত মুসলিমদের ভারত এবং ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে উস্কে দেওয়ার কাজ করে।

No comments

Powered by Blogger.