Header Ads

বিশ্বের তুমুল চাপের জেরে মুর্তাজা কুরেইরিসের ফাঁসি থেকে পিছু হটল সৌদি সরকার



 ছবি, মুর্তজা কুরেইরিস সৌঃ সমকাল
নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ  তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, যখন তার বয়স দশ তখন নাকি সে সৌদি সরকার বিরোধী সাইকেল মিছিলে অংশ নিয়েছিল। এটা ২০১১ সালের কথা। সৌদি রাজতন্ত্র পরিচালিত নির্যাতনের বিরুদ্ধে ও দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য মুর্তাজা কুরেইরিস ও তার বন্ধুরা সাইকেল মিছিল করেছিল। সে সময়ই দশ বছরের মুর্তাজা সরকারের নজরে চলে আসে। তারপর থেকেই সে ছিল পর্যবেক্ষণে। ১৩ বছর বয়সে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাহারিনে পরিবারের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার সময় ধরা পড়ে যায় মুর্তাজা।
মুর্তাজার বিরুদ্ধে এরপর রাষ্ট্রদ্ৰোহিতার সব অভিযোগ প্রমাণ করতে মরিয়া হয়ে ওঠে সৌদি সরকার। জেরায় মুর্তাজা সব স্বীকার করেছে বলেও দাবি করে সরকার। যদিও মুর্তাজার পরিবারের অভিযোগ জোর করে স্বীকারোক্তি আদায় করা হয়েছে তার। মুর্তাজার ফাঁসি হবে না শিরচ্ছেদ এই নিয়ে চলতে থাকে জল্পনা। সোচ্চার হয় বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা মানবাধিকার কর্মীরা। সোচ্চার হয় গোটা বিশ্ব। আন্তর্জাতিক স্তর থেকে প্রবল চাপের মুখে পড়ে সৌদি সরকার। 
চাপের মুখে পড়ে সৌদি সরকার পিছু হটে জানিয়ে দেয় ফাঁসি হচ্ছে না মুর্তাজার। তবে এখনই সে জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছে না। ২০২২ সালে জেল থেকে ছাড়া পাবে সমকালীন বিশ্বের কনিষ্ঠতম বিদ্রোহী মুর্তাজা কুরেইরিস।

No comments

Powered by Blogger.