Header Ads

হাইস্কুল শিক্ষান্ত পরীক্ষায় ডিমা হাসাও জেলার ১৪ সরকারি স্কুলে পাশের হার শূন্য

  বিপ্লব দেব, হাফলংঃ বেসরকারি খন্ডের বিদ্যালয় গুলির জয়যাত্রা অব্যাহত থাকার বিপরীতে সরকারি খন্ডের বিদ্যালয় গুলির শোচনীয় ফলাফলে ওই সব সরকারি বিদ্যালয় গুলির ফোপলা স্বরূপ বেড়িয়ে এসেছে। সদ্যঘোষিত হাইস্কুল শিক্ষান্ত পরীক্ষায় ডিমা হাসাও জেলার ১৪ টি সরকারি স্কুলের ফলাফলে প্রকাশ পেয়েছে বিদ্যালয় গুলির হতাশা জনক ছবি। পাহাড়ি জেলার ২০ টি সরকারি খন্ডের স্কুলের মধ্যে ১৪ টি বিদ্যালয়ের ফলাফল শূন্য। এই স্কুল গুলিতে একজনও পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হতে পারেনি হাইস্কুল শিক্ষান্ত পরীক্ষায়। মাত্র চারটি সরকারি খন্ডের বিদ্যালয়ে ১০০ শতাংশ পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হতে সক্ষম হয়েছে। এদিকে সরকারি বিদ্যালয় গুলির শোচনীয় ফলাফলের জন্য নির্বাচন ও এনআরসি সহ বিভিন্ন কাজে শিক্ষকদের নিয়োগ করার কারণেই শিক্ষার মানদন্ড তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে বলে দায়সারা মন্তব্য করেন ডিমা হাসাও জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শক বীরেন সিং ইংতি। তিনি বলেন বেসরকারি স্কুলে পড়ুয়াদের অবিভাবকরা স্কুল নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে সবকিছুর ওপর নজর রেখে চলেন। কিন্তু সরকারি বিদ্যালয়ে পড়ুয়াদের ক্ষেত্রে অবিভাবকরা কিছুটা উদাসীন এমনকি ছেলে মেয়েদের পড়াশুনার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা নিয়ে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকাদের সঙ্গে আলোচনা করতে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি অবিভাবকদের বলে মন্তব্য করেন স্কুল পরিদর্শক। এদিকে ২০১৮-১৯ বর্ষের হাইস্কুল শিক্ষান্ত পরীক্ষায় যে ১৪ টি স্কুলের ফলাফল শূন্য হয়েছে উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ওই বিদ্যালয় গুলির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান স্কুল পরিদর্শক বীরেন সিং ইংতি।

No comments

Powered by Blogger.