Header Ads

ভাল কাজ করেও চাপে পড়ে রিপুণ বরা পদত্যাগ করলেন, তা গৃহীত হওয়ার সম্ভাবনা কম


গুয়াহাটী : প্ৰাক্তন প্ৰশাসনিক অফিসার রিপুণ বরা কংগ্ৰেস দলের রাজ্য সভাপতি পদে বসার পর কংগ্ৰেস দলের সাংগঠনিক কৰ্মতৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে৷ তরুণ গগৈ মুখ্যমন্ত্ৰী দায়িত্বে থাকার সময় ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে কংগ্ৰেস দল তিনটি আসনে জয়ী হয়েছিল৷ এই বার দেশ জুড়ে ‘মোদি লহর’ চলছে, কংগ্ৰেস দলের সাংগঠনিক দুৰ্বলতা ছিলই, অসম প্ৰদেশ কংগ্ৰেস দলের মধ্যে ও নানা বিভাজন আছে৷ এই অবস্থায় কংগ্ৰেস তিনটি লোকসভা আসনে জয় লাভ করে তাদের কৰ্ম ক্ষমতার পরিচয় দিয়েছে৷ রিপুণ বরাকে প্ৰশংসা করা উচিত, কিন্তু তাঁর সমালোচনা করা হয়েছে৷ একাংশ কংগ্ৰেস সদস্য রিপুণ বরাকে সভাপতি পদ থেকে সরাতে চাইছে৷ যারা সংসদে রিপুণ বরার ইংরাজি ভাষণ শুনেছেন তার যোগ্যতা নিয়ে কোনও প্রশ্ন উঠতে পারে না৷ তার সমকক্ষ নয়, এমন কয়েকজন রিপুণকে চাইছে না৷ প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈ, রকিবুল হুসেইন প্ৰমুখ চাইছেন, নগাঁওয়ের কংগ্ৰেস সাংসদ প্ৰদ্যুৎ বরদলৈকে সভাপতি পদে বসাতে৷ সভাপতি রিপুণ বরা হঠাৎই নৈতিক দায়িত্ব নিয়ে পদত্যাগ করেন৷ রিপুণ বরা পদত্যাগ হাই কমান্ড গ্ৰহণ না করতে ও পারে৷ আহোম লবি তরুণ গগৈ, প্ৰদ্যুৎ বরদলৈ দের ‘গোপন আ্যজেন্ডা’ ভবিষ্যতে তরুণ পুত্ৰ গৌরব গগৈকে মুখ্যমন্ত্ৰীর পদে বসানো এই লবিতে নগাঁওয়ের কংগ্ৰেস নেতা রকিবুল হুসেইনও আছেন৷ অপরদিকে অকণ বরা দূৰ্লভ চমুয়া, ভূবনেশ্বর কলিতা প্ৰমুখ কোচ রাজবংশী লবি রিপুণ বরাকে সভাপতি পদে  রাখতে চাইছেন বলে দলীয় সূত্ৰের দাবি৷ রিপুণ বরার পাশে সংখ্যাগরিষ্ঠ কংগ্ৰেছের সমৰ্থন আছে৷ যদি তাঁর পদত্যাগ পত্ৰ গৃহীত হয় তবে বিকপ্ল হিসাবে ভূবনেশ্বর কলিতাকে সভাপতি পদে বসানোর কথা চলছে৷  কিন্তু কংগ্ৰেস হাই কমান্ডের এখনও রিপুণ বরার প্ৰতি আস্থা আছে৷ তাই তরুণ গগৈ লবি ইচ্ছা করলেও রিপুণকে সরাতে পারবে না৷ প্ৰসংগত বরাক উপত্যকার কংগ্ৰেস মহলেও সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ রিপুণের  প্ৰতি আস্থা রেখেছে৷

No comments

Powered by Blogger.