Header Ads

মোদিকে ‘বিভাজক গুরু’ আখ্যা দিল টাইম ম্যাগাজিন




নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ বিজেপি সুপ্ৰিমো নরেন্দ্ৰ মোদি মেরুকরণের রাজনীতি করছেন এই অভিযোগ তুলে আগেই বিরোধীরা সরব হয়েছিলেন। এবার নিৰ্বাচনের মধ্যে আন্তৰ্জাতিক সংবাদ মাধ্যমেও একই অভিযোগ উঠল। ভারতে ক্ৰমশ বেড়ে চলা অসহিষ্ণুতা নিয়ে সমালোচনা করতে গিয়ে মোদিকে সরাসরি ‘ডিভাইডার ইন চিফ’ বলে উল্লেখ করল আন্তৰ্জাতিক টাইম পত্ৰিকা। ভারতের লোকসভা নিৰ্বাচন নিয়ে ২০ মে-র সংখ্যায় বিশেষ প্ৰতিবেদন ছেপেছে টাইম ম্যাগাজিন। ফের একবার মোদি সরকার এলে তা সহ্য করা সম্ভব হবে কিনা তা নিয়েও পত্ৰিকায় সন্দেহ প্ৰকাশ করা হয়েছে। প্ৰতিবেদনে সাংবাদিক আতিশ তাসির দাবি করেছেন- তুরস্ক, ব্রাজিল, ব্রিটেন এবং আমেরিকার মতো গণতান্ত্রিক দেশগুলির মতো যত দিন যাচ্ছে ভারতেও জনমোহিনী রাজনীতি ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশগুলির মধ্যে ভারতই প্রথম জনমোহিনী রাজনীতির ফাঁদে পা দেয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমলে ভারতের বুনিয়াদি শর্ত, দেশ গঠনের কারিগর, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়, দেশের প্রাতিষ্ঠানিক মর্যাদা, বিশ্ববিদ্যালয়, কর্পোরেট দুনিয়া এবং সংবাদমাধ্যম— সব ক্ষেত্রেই অবিশ্বাসের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে বলেও দাবি করা হয় ওই প্রতিবেদনে। প্ৰতিবেদনটিতে বিরোধীদেরও সমালোচনা করে বলা হয়েছে- মোদির ভাগ্য ভাল যে বিরোধী পক্ষ দূৰ্বল। কংগ্ৰেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট একেবারেই সুশৃঙ্খল নয়। মোদিকে পরাজিত করতে তেমন নিৰ্দিষ্ট নিৰ্বাচনী ইস্যু নেই তাদের হাতে। লোকসভা নিৰ্বাচনের আরও দুই দফা বাকি। তার মধ্যেই টাইম-এর এই প্ৰতিবেদন ভোটে প্ৰভাব ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে। প্ৰসঙ্গত, এর আগেও ২০১২ এবং ২০১৪তে আমেরিকার পত্ৰিকা টাইম-এ মোদির প্ৰশংসা করা হলেও এবারে এই প্ৰথম মোদিকে সরাসরি আক্ৰমণ করা হয়েছে। 

No comments

Powered by Blogger.