Header Ads

রঙালি বিহুর মরশুমে রঙিন হল গুয়াহাটি মহানগর



দেবযানী পাটিকর, গুয়াহাটিঃ পয়লা বৈশাখের দিনটি রাজ্যজুড়ে রঙালি বিহু সাথে পালন করা হল নববর্ষ। সারা রাজ্যের পাশাপাশি রঙালি বিহুর রঙে রঙিন হল গুয়াহাটি। পালিত হল নববর্ষ।
 পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে এদিন মন্দিরে মন্দিরে দেখা যায় ভক্তদের ভিড়। নীলাচল পাহাড় স্থিত শক্তিপীঠ কামাখ্যা মন্দির, বালাজি মন্দির, বশিষ্ঠ মন্দির, বৈষ্ণব দেবী সহ বিভিন্ন মন্দিরে ও নামঘরে দেখা গেল প্রচুর ভক্তের ভিড়। এর পাশাপাসি শক্তিপীঠ কামাখ্যা ধাম সহ মহানগরের বিভিন্ন স্থানে উৎসাহ-উদ্দীপনার সাথে পালন করা হয় বাসন্তী পূজা। পাণ্ডু মালিগাঁওয়ের বিভিন্ন স্থানেও বাসন্তী পূজা আয়োজন করা হয়েছিল। সর্বজনীন ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে শুক্রবার থেকেই শুরু হয়েছে পুজোর আয়োজন। রবিবার দশমীতে এই পুজো শেষ হয়। হিন্দু শাস্ত্র মতে বাসন্তী পূজাতে দেবী দুর্গার আরাধনা করা হয়। বসন্ত ঋতুতে দেবীর পুজো হয় বলে এই পূজাকে বলা হয় বাসন্তী পূজা। এই পূজাতেও শারদীয় দুর্গাপূজা মতো ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী, পূজার শেষে দশমীতে বিসর্জন দেওয়া হয়। পূজা দেখতে বিভিন্ন প্যাণ্ডেলে ভক্তদের ভিড় দেখা যায়। এর পাশাপাশি রঙালি বিহুর মরশুমে সোমবার পয়লা বৈশাখের দিন সকাল থেকেই আপনজন, রাজ্যবাসী তথা দেশবাসীর জন্য ভগবানের কাছে প্রার্থনার জন্য অবালবৃদ্ধবনিতা সকলেই ভিড় জমান বিভিন্ন মন্দির ও নামঘরে। ওদিকে, উজান থেকে নিম্ন অসম জুড়ে পালিত হচ্ছে রঙালি বিহু উৎসব। চারদিকে শুধুই ঢাকঢোল, পেপা, গগনা, হুচুরি বিহুর সুর ভেসে আসছে। নববর্ষে বড়দের আশীর্বাদ দেওয়ার সাথে সাথে পরম্পরাগত খেলা ধুলার আয়োজন করা হয়েছে রাজ্য জুড়ে। আয়োজন করা হয়েছে মুকুলি বিহুর। লতাশীল, মালিগাঁও, কাহিলিপাড়া এইসব জায়গায় আয়োজন করা হয়েছে মুকুলি বিহুর। বৃষ্টি বাদলার মধ্যেও  বিহু দেখতে বিভিন্ন বিহুতলিতে ভিড় জমাচ্ছেন উৎসুকেরা। নববর্ষ উপলক্ষে বিভিন্ন রেস্তোরাঁতেও প্রচুর লোকের ভিড় পরিলক্ষিত হয়।

No comments

Powered by Blogger.