Header Ads

মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে বৈঠকের আমন্ত্রন পেয়ে আইএসএফের রেল অবরোধ প্রত্যাহার

বিপ্লব দেব, হাফলংঃ মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোয়ালের কাছ থেকে বৈঠকের আমন্ত্রন পেয়ে অবশেষে পাহাড় লাইনে অনির্দিষ্টকালীন রেল অবরোধ শনিবার দুপুরে প্রত্যাহার করে নিল এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম ও ইন্ডিজেনাস উইম্যান ফোরাম। প্রায় ৬৫ ঘন্টা পর লামডিং-শিলচর ব্রডগেজ রেলপথ অবরোধ মুক্ত হল। ব্রডগেজ সম্প্রসারনের কাজ করতে গিয়ে নিউহাফলং থেকে নিউহারাঙ্গাজাও পর্যন্ত প্রায় ৫০ টি গ্রামের ৫০০ পরিবারের কৃষি জমি ও বসতবাড়ি নষ্ট হয়। এরই প্রেক্ষিতে দীর্ঘদিন থেকে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীদের ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিল এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম। কিন্তু উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীদের ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে গুরুত্ব দেয়নি। তাই বাধ্য হয়ে ক্ষতিপূরণের দাবিতে এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম ও ইন্ডিজেনাস উইম্যান ফোরাম গত ৭ মার্চ থেকে পাহাড় লাইনে রেল অবরোধের ডাক দিলে গত তিনদিন থেকে পাহাড় লাইনে রেল পরিষেবা সম্পূর্ণ অচল হয়ে পড়ে। এমনকি রেল অবরোধের জেরে বরাক উপত্যকা সহ ত্রিপুরা মনিপুর মিজোরামের রেলযাত্রীরা চরম দুর্ভোগের মুখে পড়েন। এমনকি শুক্রবার উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেলের লামডিং ডিভিশনের ডিআরএম রামবাহাদুর রাই ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরামের সভাপতি ডেভিড কেভমকে রেল অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে পত্র মারফত আগামী ১১ মার্চ বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ রেলের সদর দপ্তর মালিগাঁওয়ে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেলের নির্মাণ শাখার জেনারেল ম্যানেজারের সঙ্গে ক্ষতিপূরণ ইস্যু নিয়ে ছাত্র সংগঠনটিকে বৈঠকে বসার আমন্ত্রন জানালে ডেভিড কেভম বৈঠকে বসতে রাজি হননি বরং তাদের অনির্দিষ্টকালের রেল অবরোধে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় থাকে। এই অবস্থায় সমস্যা বেড়েই চলছিল অবশেষে শনিবার দুপুরে অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ ইস্যু নিয়ে সোমবার গুয়াহাটির জনতা ভবনে বৈঠকে বসার আমন্ত্রন পেয়ে ৬৫ ঘন্টা পর দুপুর দেড়টা নাগাদ ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম ও ইন্ডিজেনাস উইম্যান ফোরাম অবরোধ তুলে নেয়। এদিকে রেল অবরোধ তুলে নেওয়ার খবরে এবার বরাক উপত্যকা সহ ত্রিপুরা মিজোরাম ও মনিপুরের রেলযাত্রীরা স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছেন। ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরামের সভাপতি ডেভিড কেভম বলেন- মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোয়ালের আমন্ত্রনকে সন্মান জানিয়ে তারা তাদের রেল অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়। ডেভিড বলেন- আগামী সোমবার দুপুর ২ টোয় দিসপুর জনতা ভবনে মুখ্যমন্ত্রীর পৌরহিত্যে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসন ও ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরামের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে ক্ষতিপূরণ ইস্যু নিয়ে যৌথ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ওই বৈঠকে উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেলের নির্মান শাখার জেনারেল ম্যানেজার দক্ষিণ অসম রেঞ্জের ডিআইজি প্রশান্ত কুমার দত্ত ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়া পুলিশসুপার শ্রীজিৎ টি উপস্থিত থাকবেন। মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের উপস্থিতে ক্ষতিপূরণ ইস্যু নিয়ে সোমবারের বৈঠক ফলপ্রসু হবে বলে আশাবাদী ডেভিড কেভম। তবে কোনও কারণ বশত যদি ওই বৈঠকের পর ও উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীদের ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দিতে কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ না করে, তাহলে এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম আবারও পাহাড় লাইনে রেল অবরোধ গড়ে তুলতে বাধ্য হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ডেভিড কেভম। এদিকে শনিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ ইন্ডিজেনাস স্টুডেন্টস ফোরাম ও ইন্ডিজেনাস উইম্যান ফোরাম পাহাড় লাইনে অনিৰ্দিষ্টকালীন রেল অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়ার পরই লামডিং-শিলচর ব্রডগেজ রেলপথে ট্রেন চলাচল পুনরায় সচল হয়ে উঠে।

No comments

Powered by Blogger.