Header Ads

উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদ নির্বাচনে ভোট পড়ল ৯০ শতাংশ, মঙ্গলবার ভোটগণনা

 বিপ্লব দেব, হাফলং-  দ্বাদশ উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনে এবার রেকর্ড ভোট পড়ল। শনিবার উত্তর কাছাড় পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৮৯-৬০ শতাংশ। সরকারি সূত্রে জানানো হয় পরিষদের নির্বাচনে বিকেল পর্যন্ত ভোট পড়েছিল ৭৫ শতাংশ তবে ভোটের হার আরও বাড়তে পারে। কারণ যোগাযোগ সমস্যার দরুণ পাহাড়ি জেলার প্রত্যন্ত এলাকার ভোটের হার না আসায়। তবে রবিবার দুপুরের মধ্যে প্রত্যন্ত জিনামভ্যালি ও বড়াইল আসনের ১৫ টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ব্যালট বক্স হাফলং ডনবস্কো হায়ার সেকেন্ডারী স্কুলে আসার পর জেলা নির্বাচনী কার্যালয় থেকে নির্বাচনী অফিসার হেমাঙ্গ নবিস জানিয়েছেন শনিবার অনুষ্ঠিত দ্বাদশ উত্তর কাছাড় পার্বত্য পরিষদে ভোট পড়েছে ৮৯-৬৯ শতাংশ। এদিকে পরিষদের ২৮ টি আসনের ২৮০ টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ব্যালট বক্সগুলি কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে হাফলং ডনবস্কো হায়ার সেকেন্ডারী স্কুলে স্ট্রং রুমে রাখা হয়েছে। আগামী ২২ জানুয়ারি সকাল ৮ টা থেকে ডনবস্কো স্কুলের ৩টি কক্ষে তিন টেবিলে ভোট গণনা করা হবে। এদিন রাতের মধ্যেই পরিষদ কার দখলে যাচ্ছে তা পরিষ্কার হয়ে যাবে। এদিকে শনিবার শান্তিপূর্ণ নির্বাচন শেষ হওয়ায় ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক তথা রিটার্নিং অফিসার অমিতাভ রাজখোয়া জেলাবাসীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। কারণ শনিবার পরিষদের ২৮ টি আসনের ২৮০ টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে শেষ হয়। এবার নির্বাচন শেষ হওয়ার পরই পরিষদ কে গঠন করবে এনিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। তবে দ্বাদশ উত্তর কাছাড় পার্বত্য পরিষদ গঠনে বিজেপি অনেকটা এগিয়ে রয়েছে বলে মনে করছে জেলার রাজনৈতিক মহল। গত পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনে বিজেপি পরিষদের একটি আসনে জয়ের মুখ না দেখে পরিষদের পাঁচ বছরের কার্যকালের মধ্যে দুই বছর ছয়মাস বিজেপি পরিষদে ক্ষমতায় ছিল। তবে এবারের নির্বাচনে পার্বত্য পরিষদের ২৮ টি আসনের মধ্যে ১২ থেকে ১৫ টি আসন বিজেপির দখলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাছাড়া পরিষদে ৮টি আসনে নির্দল প্রার্থীর জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জেলার রাজনৈতিক মহলে এখন জোর চর্চা চলছে। তাই বিজেপি পরিষদ গঠনে নির্দল প্রার্থীরাই মুখ্য ভূমিকা পালন করতে পারে এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এদিকে জেলা বিজেপি-র নেতা কর্মীরা আশাবাদী একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়েই পরিষদ গঠন করবে বিজেপি। তবে দ্বাদশ স্বশাসিত পরিষদে কোন দল ক্ষমতায় আসছে তারজন্য আগামী ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকতে হবে পাহাড়বাসীকে।


No comments

Powered by Blogger.