Header Ads

তিনসুকিয়ায় নরসংহারের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানালেন হরিশ রাওয়াত

 

শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসনের শান্তি সভা হাফলঙে

বিপ্লব দেবঃ হাফলং 
তিনসুকিয়া ধলা সদিয়ায় বৃহষ্পতিবার রাতে সন্দেহ ভাজন জঙ্গিরা যে নরসংহার চালিয়েছে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এআইসিসির সাধারন সম্পাদক হরিশ রাওয়াত। আজ হাফলঙে হরিশ গতকাল রাতের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি এই ঘটনার জন্য বিজেপি সরকারকে দায়ী করে এআইসিসির সাধারন সম্পাদক হরিশ রাওয়াত বলেন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে বিজেপি বিভাজনের রাজনীতি শুরু করেছ। হাফলঙে শুক্রবার হরিশ রাওয়াত সাংবাদিকদের বলেন অসম প্রদেশ কংগ্রেসের এক প্রতিনিধি দল আজ তিনসুকিয়ার ধলা সদিয়া তথা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে বৃহষ্পতিবার রাতে সন্দেহভাজন জঙ্গির গুলিতে নিহতদের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে গভীর সমবেদনা জানায়। এদিকে অসম প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি বৃহষ্পতিবার রাতের এই নরসংহারে সরকারের হাত থাকতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করে গতকাল রাতের এই নারকীয় ঘটনার তীব্র ভাষায় নিন্দা জানিয়ে এই ঘটনার উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত করে এই নরহত্যার সঙ্গে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদান করার পাশাপাশি নিহতদের পরিবারবর্গকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানান রিপুন বরা। অসম প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রিপুন বরা সাংবাদিকদের আরো বলেন এই ঘটনার পর আজ যেভাবে আলোচনাপন্থী আলফা নেতা মৃনাল হাজারিকা ও জীতেন দত্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ তা আগেই করা উচিত ছিল সরকারের। এছাড়া রিপুন বরা যে সব বিজেপি নেতা বিধায়ক উস্কানি মূলক মন্তব্য করে পুরো রাজ্যকে অশান্ত করে তুলতে চাইছে এদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা উচিত। রিপুন বরা রাজ্যের সর্বস্তরের মানুষকে যে কোনও অবস্থায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানান। এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যায় হাফলং আবর্ত ভবনে ডিমা হাসাও জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়ার পৌরহিত্যে এক শান্তি সভায় ডিমাসা সর্বোচ্চ সংগঠন জাদিখে নাইশ হসম অল ডিমাসা স্টুডেন্ট ইউনিয়ন রাংখল এপেক্স বডি বিভিন্ন দল সংগঠনের নেতারা গতকাল রাতে ধলা সদিয়ার এই জঘন্য নারকীয় ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এই ঘটনার জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তি প্রদানের দাবি জানিয়ে রাজ্যবাসীকে সংযত হয়ে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি এই ঘটনার রেশ যাতে কোনও অবস্থায় পাহাড়ি জেলায় না পড়ে সেদিকে নজর রাখার আবেদন জানায়। এদিকে ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়া ও পুলিশসুপার প্রশান্ত শইকীয়া কোনও অবস্থায় যাতে কেউ গুজবে কান না দেয়। এছাড়া কেউ যদি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উস্কানিমূলক মন্তব্য ও গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে জেলাপ্রশাসন বা পুলিশ প্রশাসনকে অবগত করার জন্য আহ্বান জানান জেলাশাসক। পুলিশসুপার প্রশান্ত শইকীয়া বলেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের উপর পুলিশ কড়া দৃষ্টি রেখেছে। কেউ যদি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষবাষ্প ছড়ানোর চেষ্টা করে তাহলে এদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কোঠর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে জানান পুলিশসুপার। এদিনের শান্তি বৈঠকে অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলাশাসক বিক্রম দেব শর্মা দীপক জিডুং জাদিখে নাইশ হসমের সভাপতি কল্যান দাওলাগাপু অল ডিমাসা স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সভাপতি উত্তম লাংথাসা জন পাইতং সহ বিভিন্ন দল সংগঠনের প্রতিনিধিরা

No comments

Powered by Blogger.