Header Ads

তিনসুকিয়া জেলার ধলার চৌখোয়া থানার কাছে খেরবাড়ি গ্ৰামে দুৰ্বৃত্তের গুলি চালনা, নিহত ৫


 ছবি, সৌঃ এনডিটিভি
নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, গুয়াহাটিঃ  এনআরসি নিয়ে আলোচনাপন্থী বিভিন্ন আলফা নেতা এবং রাজনৈতিক দলের নেতাদের উত্তেজনামূলক ভাষণে অসমে যে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির আশঙ্কা করা হয়েছিল শেষ পৰ্যন্ত সেই আশঙ্কাই বাস্তবে পরিণতি পেল। বৃহস্পতিবার তিনসুকিয়া জেলার ধলার চৌখোয়া থানার কাছে খেরবাড়ি গ্ৰামে সন্ধ্যে সাড়ে সাতটা নাগাদ ৫ থেকে ৬ জন দুৰ্বত্ত পাঁচ জন হিন্দু বাঙালিকে গুলি করে হত্যা করে। ঘটনায় আরও একজন আহত অবস্থায় সেখান থেকে পালিয়ে কোনও মনতে প্ৰাণে বাঁচেন। নিহতদের নাম ক্ৰমে শ্যামল বিশ্বাস, অনন্ত বিশ্বাস, অবিনাশ বিশ্বাস, ধনঞ্জয় নমশূদ্ৰ এবং সুবল দাস। শ্যামল, অনন্ত এবং অবিনাশ একই পরিবারের সদস্য ছিলেন। এই ঘটনার পেছনে আলফা জরিত থাকার সন্দেহ করা হচ্ছে। দুৰ্বৃত্তরা গ্ৰামে ঢুকে তাঁদের সঙ্গে কথা আছে বলে ডেকে নিয়ে এক জায়গায় বসিয়ে এক এক করে গুলি করে মারে বলে জানা গেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে রাজ্যের মুখমন্ত্ৰী সৰ্বানন্দ সনোয়াল এ ঘটনার তীব্ৰ নিন্দা করেছেন। যে কোনও প্ৰকারে দুৰ্বৃত্তদের গ্ৰেফতারের নিৰ্দেশ দিয়েছেন তিনি। প্ৰত্যেকটি জেলার ডিসি, এসপি-কে সতৰ্ক থাকার নিৰ্দেশ দিয়েছেন তিনি। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন ডিজিপি কুলধর শইকিয়া, এডিজিপি মুকেশ আগরওয়াল। রাজ্যের দুই মন্ত্ৰী ক্ৰমে জলসম্পদ মন্ত্ৰী কেশব মহন্ত এবং বিদ্যুৎ মন্ত্ৰী তপন গগৈকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার নিৰ্দেশ দিয়েছেন সনোয়াল। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। খেরবাড়ি গ্ৰামবাসীদের অভিযোগ, ঘটনাস্থল থেকে ২০০ মিটার দূরত্বে রয়েছে চৌখোয়া থানা। সেখানে ফোন করা হলেও থানায় ফোন বন্ধ ছিল। এ ব্যাপারে কেন্দ্ৰীয় স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং মুখ্যমন্ত্ৰী সনোয়ালের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। মুখ্যমন্ত্ৰীকে খুব শীঘ্ৰই উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্ৰহণের নিৰ্দেশ দিয়েছেন স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী রাজনাথ সিং। এদিকে খবর পেয়ে ট্যুইট করে এ ঘটনার তীব্ৰ নিন্দা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্ৰী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এনআরসি উদ্ভুত পরিস্থিতির প্ৰেক্ষিতেই এ ঘটনা ঘটল বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। ছাত্ৰ সংগঠন আসু-র সাধারণ সম্পাদক ল্যুরিন জোতি গগৈ এ ঘটনার জন্য রাজ্য সরকারকেই দায়ী করেছেন। রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্ৰণে রাখতে বিজেপি সরকার ব্যৰ্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।  কংগ্ৰেস নেতা কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থ ঘটনার তীব্ৰ নিন্দা করে বলেন, অসমে নিরীহ হিন্দু বাঙালিদের হত্যা করা হচ্ছে। রাষ্ট্ৰপতি শাসন ছাড়া রাজ্যে শান্তি আসবে না। 

No comments

Powered by Blogger.