Header Ads

অবশেষে বিকেলেই দিল্লি আক্রমণ করল কোটি কোটি পঙ্গপাল !!

 বিশ্বদেব চট্টোপাধ্যায়
যা ভয় ছিল, তাই-ই ঘটল। গুরুগ্রামে পৌঁছেই পঙ্গপালের দল হানা দিল ভারতের রাজধানী দিল্লিতে। শনিবার সকালে গুরুগ্রামের আকাশ ছেয়ে যায় পঙ্গপালে। কোটি কোটি পঙ্গপাল দখল নেয় গুরুগ্রাম। সেখান থেকে দুপুরেই কয়েক কোটি পঙ্গপাল হানা দিল দিল্লি। দক্ষিণ দিল্লির ছতরপুরে হামলা চালাল পঙ্গপালের দল !
পঙ্গপাল মোকাবেলায় দিল্লির পরিবেশমন্ত্রী গোপাল রাই গোটা দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায় হাই অ্যালার্ট জারি করেছেন।

প্রশাসনকে তৎপর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। পঙ্গপালের দল প্রথমেই হামলে পড়বে ফসলের উপর। তাই দিল্লির কৃষি দপ্তর প্রতিটি জেলা প্রশাসককে বিশেষ অ্যাডভাইজারি ইস্যু করেছে। বন দপ্তরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, ডি জে, ঢোল, বাসনপত্র বাজিয়ে পঙ্গপালের দলকে ছত্রভঙ্গ করার জন্য।
গুরুগ্রাম সংলগ্ন কৃষিজমিগুলোতে গিয়ে পরিস্থিতি দেখার জন্য কৃষি দপ্তরের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের পঙ্গপাল সতর্কতা বিভাগের প্রধান কেএল গুর্জর জানিয়েছেন, এ দিন বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ পঙ্গপালের দল গুরুগ্রামে ঢোকে। মুহূর্তের মধ্যে তারা ২ কিমি এলাকায় ছেয়ে যায়।
মে মাসে পঙ্গপালের দল প্রথম হামলা চালায় ভারতের রাজস্থানে। তারপর পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র ও গুজরাটে। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ৪ প্রজাতির পঙ্গপাল রয়েছে ভারতে। মরুভূমির পঙ্গপাল, পরিযায়ী পঙ্গপাল, বম্বে পঙ্গপাল ও গাছ পঙ্গপাল। এর মধ্যে সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক হল মরুভূমির পঙ্গপাল।
মরুভূমির পঙ্গপাল বা ‘ডেসার্ট লোকাস্ট’ দেখা যায় সৌদি আরবের রাব আল খালি মরুভূমিতে ৷ কিন্তু এই পতঙ্গ পরিযায়ী। ঝাঁকে ঝাঁকে উড়ে এসে যে কোনো দেশেই আক্রমণ চালাতে পারে ৷ আফ্রিকা, মধ্য প্রাচ্য (আরব দেশগুলি) এবং দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ায় পঙ্গপাল অত্যন্ত পরিচিত একটি পতঙ্গ ৷ পুরুষ এবং স্ত্রী পঙ্গপালের আকার কিছুটা আলাদা ৷ পুরুষ পঙ্গপালের দৈর্ঘ ৬০-৭৫ মিমি ৷ সেখানে স্ত্রী পঙ্গপালের ৭০-৯০ মিমি ৷ ওজন হয় ২ গ্রাম ৷
সাধারণত পঙ্গপাল ফসল এবং গাছই খেয়ে থাকে ৷ মুহূর্তের মধ্যে ফাঁকা করে দিতে পারে ক্ষেত ৷ ১৬ থেকে ১৯ কিমি প্রতি ঘণ্টায় ওড়ে পঙ্গপাল ৷ তাই এই পতঙ্গের গতিও যথেষ্ট ৷ একদিনের মধ্যে ২০০ কিমি পাড়ি দিতে পারে আনায়াসে ৷ আয়ু সাধারণত ৩-৫ মাস ৷ পাখি এবং কিছু সরীসৃপ প্রাণীই এদের প্রধান শত্রু ৷ একটি ঝাঁকের একাংশ এক দিনে যা খায়, তা ১০টি হাতির খাবারের সমান !

No comments

Powered by Blogger.