Header Ads

কেন্দ্রীয় প্রতিনিধ দল পশ্চিমবঙ্গের করোনা মোকাবিলায় তৃণমূল সরকারের ব্যর্থতার কড়া সমালোচনা করেছে


নয়া ঠাহর, গুয়াহাটি : দিল্লির নিজামুদ্দিন থেকে আসা ব্যাক্তিদের দেহে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ছে। এবার প্রতিবেশী পশ্চিমবঙ্গ থেকে আসা ব্যাক্তিদের দেহেও সংক্রমণ ধরা পড়ছে। অসম সরকার উদ্বিগ্ন। গতকাল কোচবিহার থেকে আসা এক ব্যক্তির দেহে পজিটিভ ধরা পড়েছে। হাসান আলী শেখ নামে ওই ব্যক্তি কোকড়াঝাড়ের কয়রেন্টিন সেন্টারে ছিলেন। গোয়ালপাড়া জেলার এক ব্যাক্তির পজিটিভ ধরা পড়ার পর অসমে ৪৪ জন পজিটিভে আক্রান্ত হল। অসমে কয়েকদিনে লক্ষ লক্ষ মানুষ ঢুকবে। মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল আজ শ্রীরামপুরের কয়রেন্টিন সেন্টারে অবস্থা খতিয়ে দেখেন। কোকড়াঝাড় ধুবড়ির ডি সি ও পদস্থ অফিসারদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। অরুণাচল প্রদেশ থেকে গত তিন দিনে ৪ হাজার মানুষ এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী আজও রাজ্যবাসীর কাছে কাতর অনুরোধ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে বলেন। ত্রিপুরায় কয়েকজন বি এস এফ জওয়ান করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হচ্ছে।  কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়ে গেছে। রিলিফ নিয়ে তৃণমূল দল, সিন্ডিকেটথেকে পাড়ার তৃণমূল দাদারা ব্যাপক দুর্নীতি করছে বলে বিজেপি অভিযোগ করেছে। করোনায় আক্রান্তদের জাত পাত বিচার করা হচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ আসছে ।

No comments

Powered by Blogger.