Header Ads

লকডাউনের ফলে দেশের প্রায় ৮ কোটি পরিযায়ী শ্রমিক কর্মহীন, দুর্ঘটনায় পরে প্রাণ হারাচ্ছে


অমল গুপ্ত, গুয়াহাটিঃ মাত্র চার ঘন্টার নোটিশে গত ২৪ মার্চ দেশ জুড়ে লকডাউন ঘোষণার ফলে সারা দেশের প্রায় ৮ কোটি পরিযায়ী শ্রমিক কর্মহীন হয়ে, ভাড়াঘর থেকে বিতাড়িত হয়ে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে আবদ্ধ হয়ে পড়েছে। মহারাষ্ট্র থেকে অসমের পাঁচ যুবক কিশোর কুমার দাস, কৃষ্ণ কুমার সঞ্জীব দাস, নিলোৎপল ডেকা এবং পাপুমনি ডেকা আজ অসম সরকারের কাছে কাতর আহ্বান জানিয়ে অবিলম্বে তাদের অসমে ফিরিয়ে নিয়ে যাবার জন্যে বলেছেন, তারা জানিয়েছেন কর্মস্থল থেকে ছাঁটাই করে দেওয়া হয়েছে, ভাড়াবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। অভুক্ত অবস্থায় দিন কাটছে, সরকার কোনো ব্যবস্থা না করে তারা ৫ জন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবে, এর জন্যে দায়ী থাকবে অসম সরকার। কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর নির্দেশ পেয়ে অসম প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি আজ পশ্চিমবঙ্গের ১১৯ জন আটকে পড়া মানুষকে আন্তঃরাজ্য বাস স্টেশন থেকে কলকাতায় পাঠিয়েছে, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রিপুন বরা আজ একথা জানিয়ে বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায়, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পরিযায়ী শ্রমিকরা দুর্ঘটনায় পরে প্রাণ হারাচ্ছে। তিনি জানান, অসমে আবদ্ধ ছাত্র শ্রমিক বা যেই হোক না কেন প্রদেশ কংগ্রেস তাদের ট্রেন বাসের টিকিট কেটে দেবে। আজ প্রথম দলকে পাঠানো হল। 
কংগ্রেস দল পশ্চিমবঙ্গের আরও প্রায় ৩০০ মানুষের সন্ধান পেয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অনুমতি নিয়ে ট্রেনের টিকিট করে দেওয়া হবে। এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল আজ ভিন রাজ্য থেকে ফিরে আসা অসমের শ্রমিকদের এই রাজ্যে কর্ম সনস্থানের জন্যে আজ এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মুখ্যমন্ত্রী জানান, শ্রমিকদের এনরেগার জবকার্ড দিয়ে তাদের কাজ দেবার জন্যে সব পঞ্চায়েত প্রধানদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও তাদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য স্কিল ডেভেলপমেন্ট বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী জানান এক ডিজিটাল প্লাট ফর্ম তৈরি করে ফিরে আসা শ্রমিকদের কাজ কর্মের দক্ষতা, খতিয়ে দেখা হবে।

No comments

Powered by Blogger.