Header Ads

লক ডাউনের পূর্বে বাড়ি ফেরা , বাহনের জন্য হাহাকার, বাজারে উপচে পড়া ভিড়


নয়া ঠাহর  প্রতিবেদন।
সমগ্র দেশের সাথে রাজ্যেও যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ,লকডাউন এই যুদ্ধে  আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বী এক অদৃশ্য শত্রু,' এক ভাইরাস ।এই ভাইরাসের প্রতিরোধ করার জন্য রাজ্য সরকার ২৩ মার্চ থেকে লকডাউনের ঘোষণা করেছে।এর পরই নগরের  বিভিন্ন জায়গায় লোকের সমাগম দেখা গেছে। লকডাউন করা হয়েছে পাঞ্জাব ঝাড়খণ্ডের মত রাজ্যগুলি উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অসম সহিত নাগাল্যান্ড, অরুণাচল প্রদেশ  ও মিজোরামে লক ডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
উল্লেখনীয় যে রাজ্যে  মঙ্গলবার বিকেল ৬টা থেকে লক ডাউন শুরু হয়েছে এবং এটা চলবে৩১ মার্চ মাঝ রাত পর্যন্ত।লক ডাউনের পূর্বে নামনি অসমের যাতায়াতের প্রাণকেন্দ্র স্বরূপ জলুকবাড়িতে সকাল থেকেই ভিড় পরিলক্ষিত হতে দেখা গেছে।গুয়াহাটি তে কর্মরত বিভিন্ন প্রান্তের লোকেদের ঘরে ফেরার জন্য বাসের আশায় ভীড় করে জালুকবাড়ীতে।ওদিকে যাত্রীবাহী বাস বন্ধ থাকার সুযোগ নেয় একাংশ বাহন চালকেরা।দুই -তিন গুণ ভাড়া সুযোগ বুঝে বাড়িয়ে দেয় বাস চালকেরা।উপায় না পেয়ে ঘর মুখী লোকেরা ট্রাক ,মালবাহী বহন করে কোনও ভাবে ঘরের দিকে রওনা দেয়।
উল্লেখনীয় যে লক ডাউনের আগে সমস্ত।দোকানে ভীড় উপচে পরে।বিশেষ করে গালামালের দোকানে আর ওষুধের দোকানে দেখা গেছে লম্বা লাইন।
ওদিকে ৬টা থেকেই লক ডাউন শুরু হয়ে যাবার পর দোকান -বাজার সব বন্ধ হয়ে রাস্তা খালী হয়ে যায়।রাজ্যবাসী নিজেকে ঘরের ভিতরে আবদ্ধ করে ফেলে।

No comments

Powered by Blogger.