Header Ads

ইন্ডিজেনাস পিপোলস ফোরাম অনিদৃষ্টকালের ডিমা হাসাও জেলা বনধ প্রত্যাহার করার পর মঙ্গলবার রাতে দূষ্কৃতিকারীরা একটি ঘর, দুটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ করে জ্বালিয়ে দেয়



বিপ্লব দেব, হাফলং ১২ ফেব্রুয়ারিঃ এন সি হিলস ইন্ডিজেনাস পিপোলস ফোরাম মঙ্গলবার রাতেই অনিদৃষ্টকালের বন্ধ প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর এদিন রাতেই হাফলঙের পার্শ্ববর্তী আপার বাগেটারে একটি ঘর ও নিউকুঞ্জুংয়ে দুটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ করে জ্বালিয়ে দেয় দূষ্কৃতিকারীর দল। ইন্ডিজেনাস পিপোলস ফোরাম রাতে ডিমা হাসাও বনধ প্রত্যাহার করার কথা ঘোষনা করার পর রাত সাড়ে দশটা নাগাদ প্রথমে আপার বাগেটারে একটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে দূষ্কৃতিকারীর দলে তার কিছুক্ষণ পরই হাফলং শহরের নিউকুঞ্জুংয়ে দুটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে পুনরায় দূষ্কৃতিকারীর দল দুটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ করে এতে সম্পূর্ণ ভষ্মীভূত হয়ে যায় একটি ঘর ও দুটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান। এদিকে মঙ্গলবার ইন্ডিজেনাস ফোরামের বনধ চলাকালীন শহরে তান্ডব চালায় বনধ সমর্থককারীরা সরকারি কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি পুলিশের গাড়ীতে আক্রমন সরকারি গাড়ী জ্বালিয়ে দেয় এমনকি পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর বর্ষন করায় পুলিশ বনধ সমর্থককারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানো গ্যাস নিক্ষেপ করার পাশাপাশি রাবার বুলেট চালাতে বাধ্য হয়। এতে সাতজন বনধ সমর্থককারী আহত হয়ে হাফলং সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে বনধকে কেন্দ্র করে হাফলং শহরে হিংসাত্মক পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ার পর উত্তেজনা প্রশমনে শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ব্যাটেলিয়ান নিয়োগ করা হয়েছে। তবে মঙ্গলবারের এই হিংসাত্মক ঘটনার রেশ কাটিয়ে হাফলং শহর বুধবার ছন্দে ফিরে এসেছে। আগামীকাল ডিমা হাসাও জেলার জেলাশাসক বেলা সাড়ে এগারোটায় হাফলং আবর্ত ভবনে বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর প্রধান সংগঠন ছাত্র সংগঠনদের নিয়ে এক শান্তি সভার আয়োজন করেছে। এদিকে মঙ্গলবার রাতে বাগেটার ও নিউকুঞ্জুংয়ে একটি ঘর ও দুটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান দূষ্কৃতিকারীর দল জ্বালিয়ে দেওয়ার পর বুধবার এলাকা দুটি পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সব ধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস প্রদান করেন উত্তর কাছাড় স্বশাসিত পরিষদের সিইএম দেবোলাল গার্লোসা। বুধবার ডিমা হাসাও জেলার বিভিন্ন জাতি জনগোষ্ঠীর প্রধান সংগঠন গুলিকে নিয়ে গঠিত জয়েন্ট কর্ডিনেশন কমিটির কার্যকরী সভাপতি ফ্রেজার সেঙ্গইয়ং সাধারণ সম্পাদক এস চাংসন ডিমাসা মাদারস অ্যাসোসিয়েশনের সভানেত্রী ও সাধারন সম্পাদিকা এগনেস গার্লোসা ও মিলি জিডুং উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের দুই মনোনীত সদস্য লিটন চক্রবর্তী ঈশ্বরী প্রসাদ যৈইশী ও পার্বত্য পরিষদের প্রাক্তন সদস্য তুষার কান্তি দেব হাফলং সরকারি হাসপাতাল গিয়ে গতকাল বনধে হিংসাত্মক ঘটনায় আহতদের খোজ খবর নেওয়ার পাশাপাশি মঙ্গলবার বনধে তথ্য ও জনসংযোগ বিভাগের দুই কর্মচারী অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পথে দূষ্কৃতিকারীদের আক্রমনে আহতদের বাড়ি গিয়ে এদের স্বাস্থ্যের খোজ খবর নেয়। অন্যদিকে মঙ্গলবার তথ্য ও জনসংযোগ বিভাগের কার্যালয়ের দুই কর্মচারী সেইহেন চাংসন ও স্যামুয়েল নামপুই নিজ কার্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুপুর আড়াইটা নাগাদ কিছু ডিমাসা যুবক এদের উপর চড়াও হয়ে প্রচন্ড মারধর করার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানায় কুকি ইনপি অসম। বুধবার এক প্রেস বিবৃতিতে যোগে মঙ্গলবার এই দুই কর্মচারীর উপর এধরনের আক্রমনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে কুকি ইনপি অসমের সাধারন সম্পাদক এস গুইতে বিবৃতিতে উল্লেখ করেন এধরের ঘটনা অতি দূর্ভাগ্য জনক ও অমানবিক। মঙ্গলবারের এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে উপযুক্ত সাজা প্রদান করার দাবি জানিয়েছেন কুকি ইনপি অসমের সাধারন সম্পাদক এস গুইতে। প্রেস বিবৃতিতে কুকি ইনপি অসমের সাধারন সম্পাদক এধরনের অবাঞ্চিত ঘটনা পরিহার করে সবাইকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। 

No comments

Powered by Blogger.